Uncategorized

রোহিঙ্গাদের জন্য ১০ লাখ টাকার সামগ্রী পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আবেদনের প্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা (ইউএসএইড) বাংলাদেশ সরকারকে মিয়ানমার থেকে আগত রোহিঙ্গাদের জন্য ৬ লাখ ২২ হাজার ৮০০ ডোজ কন্ট্রাসেপ্টিভ (গর্ভনিরোধক) সামগ্রী পাঠিয়েছে। এ পর্যন্ত সবমিলিয়ে যুক্তরাষ্ট্র প্রায় ১০ লাখ কন্ট্রাসেপ্টিভ প্রদান করলো যার বর্তমান মুল্য প্রায় ৯ লাখ ১ হাজার ২৩২ ডলার।

এছাড়া, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ২ লাখ ৯২ হাজার ডোজ কন্ট্রাসেপ্টিভ এবং ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে ৩০ লাখ প্যাকেট ওরস্যালাইন প্রদান করেছিল। ২৫ আগস্ট ২০১৭ থেকে যুক্তরাষ্ট্র সরকার বাংলাদেশে অবস্থিত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের এবং তারা যে এলাকায় আশ্রয় নিয়েছে সেই এলাকার জনগণকে প্রায় ১১০ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি অর্থ সহায়তা দিয়েছে।

গত বছর ২৫ আগস্ট থেকে এ পর্যন্ত প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে পালিয়ে কক্সবাজার এ আশ্রয় নিয়েছে। সেখানে রোহিঙ্গারা স্বাস্থ্য সমস্যাসহ নানা ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। বিশেষ করে, নবজাতক, শিশু, স্তনদাত্রী ও গর্ভবতী নারীরা অপুষ্টি, সংক্রামক রোগ ও খাদ্য অনিরাপত্তার স্বীকার হচ্ছে।

ইউএসএইড মিশন ডিরেক্টর ইয়ানিনা জারুজেলস্কি বলেন, সবচেয়ে অরক্ষিত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জীবন রক্ষাকারী ও প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সামগ্রী ব্যবহারের সুযোগ করে দিতে ইউএসএইড প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বাংলাদেশে রোহিঙ্গা সংকটে সাহায্যের ক্ষেত্রে প্রাথমিকভাবে ইউএসএইড মুলত জরুরি জীবন রক্ষাকারী খাদ্য সহায়তা এবং পুষ্টি সেবামূলক সহায়তা প্রদান করছে।

 

ডেস্ক নিউজ, প্রবাস কথা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.