Featured Uncategorized ইউরোপ

রোমের কলোসিয়ামে একদিন

শেয়ার করুন

প্রাচীন রোমান সম্রাজ্যের কেন্দ্র রোমে প্রবেশ করার সাথে সাথে কল্পনায় সেই রোমান সম্রাজ্যের আমলে ফিরে গেলাম। বিমান থেকে নেমে মোবাইলে রোমের মেট্রোম্যাপ ডাউনলোড করে নিলাম। এরপর ট্রেন স্টেশন গিয়ে টিকেট কেটে (১৪ ইউরো) টার্মিনি স্টেশনে নেমে দুইদিন রোম শহর ঘুরতে ৪৮ ঘন্টার আনলিমিটেড মেট্রো টিকেট কিনলাম। দাম নিলো সাড়ে বারো ইউরো। এই টিকিটে বাস, মেট্রো বা ট্রাম সবগুলোতেই চড়া যায়।

হোস্টেলওর্য়াল্ডে একটা সিট আগে থেকেই বুকিং করা ছিল। হোটেল আলেক্সান্দার এক রুমে ৪ সিট, ভাড়া এক রাতের জন্য ১১ ইউরো। হোটেল রিভিউ খারাপ না, অনেক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন। আসলে সিঙ্গেল ট্রাভেলারদের জন্য হোটেল থেকে স্টোটেল অনেক কম দামে রাত থাকা যায়। রুমে গিয়ে হালকা নাস্তা করে বের হলাম রোম শহর দেখতে।

রোম বললেই কল্পনায় আসে “কলোসিয়াম”। একটা ট্রামে উঠে চলে গেলাম কলোসিয়াম। ইতালিতে বাংলাদেশী লোকজনের সংখ্যা অনেক বেশি। কথা বলে জানা গেল অনেকেই এসেছে আফ্রিকার দেশ লিবিয়া হয়ে। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা কম থাকার কারনে এমন অনেকেই আছেন সবার সাথে পাল্লা দিয়ে চলতে পারে না।

তাই তারা রাস্তায় খুচরা জিনিসপত্র বিক্রি করে চলে। আবহাওয়া এতোটা বাজে ছিল যে, কিছুক্ষণ বৃষ্টি হয় আবার কিছুক্ষণ রোদ। বৃষ্টির এমন নাশকতা দেখে নরমাল একটা রেনকোট কিনে নিলাম ২ ইউরো দিয়ে এক দেশী ভাইয়ের কাছ থেকে।

আবার এই প্রবাসী বাংলাদেশি তারাই অমানুষিক পরিমশ্রম করে সচল রাখছে দেশের অর্থনীতির চাকা।

রাতে রুমমেট  ছিল এক জাপানি ছেলে। তার সাথে আমার অল্প সময়ে ভালো খাতির হলো। দুইজন একসাথে বেশ ঘুরাঘুরি করতে পারছি সেও আমার মতো একা এসেছে, সে প্রায়ই ইউরোপ আসে। ইতালি তার ২য় ট্রিপ। সে ছাএ ভার্সিটি বন্ধ হলে চলে আসে। বাংলাদেশে সফর করছে বলে কিছুটা বাংলায়ও কথা বলতে পারে।

কলোসিয়াম ঘুরে একটা বাসে উঠে চলে গেলাম ভ্যাটিকান সিটি, সেখানে সেইন্ট পিটার’স ব্যাসেলিকা ঘুরলাম ঘন্টা দু’য়েক। এরপর বাসে করে আসলাম টার্মিনি সেন্ট্রাল ট্রেন স্টেশন। এসে অটোমেশিনের লাইনে দাড়ালাম ভেনিস শহরের টিকেট কাটবো এই চিন্তা করে।

মোবাইলে আবহাওয়া দেখে মনটা খুব খারাপ লাগলো যে আগামী দুইদিন বৃষ্টি থাকবে। তাই আর টিকেট না কেটে রুমে চলে গেলাম। সেখানে গিয়ে দুপুরের খাবার খেয়ে বের হলাম ইতালিকে বিদায় জানাবো বলে।

  • এ এম আমান উল্লাহ, সুইজারল্যান্ড। 
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.