Featured এশিয়া

উত্তাল হংকং চলছে বিক্ষোভ

চীনের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠেছে হংকং। রোববার রাতে অপরাধী প্রত্যর্পণ আইনের বিরুদ্ধে হংকংয়ের পথে নামে প্রায় পাঁচ লাখ মানুষ। নতুন এ আইন অনুযায়ী চীন চাইলে সন্দেহভাজন অপরাধীদের নিজ ভূখণ্ডে নিয়ে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে পারবে।

বুধবারও অঞ্চলটির সরকারি অফিসে যাওয়ার প্রধান সড়কগুলো অবরোধ করে রেখেছে হাজার হাজার বিক্ষোভকারী।  তবে ব্যাপক গণআন্দোলনের মধ্যেই সোমবার অঞ্চলটির শাসক বেইজিংপন্থী হিসেবে পরিচিত ক্যারি ল্যাম সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, কথিত ওই অপরাধী প্রত্যর্পণ বিলে কোনও কাটছাঁট করা হবে না।

বুধবার তার কার্যালয় সংলগ্ন রাস্তায়ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করে বিক্ষুব্ধ মানুষ।  এ সময় সেখানে মোতায়েন দাঙ্গা পুলিশের শত শত সদস্য তাদের আর সামনে অগ্রসর না হওয়ার হুঁশিয়ারি দেয়।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীদের অধিকাংশই তরুণ যাদের পরনে রয়েছে কালো পোশাক।  তারা হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যারি ল্যামের দপ্তরের কাছে পূর্ব-পশ্চিমমুখী লাং উ সড়কে ও এর আশপাশে জড়ো হয়েছে।

এদিকে হংকং পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ প্রস্তুতি নিয়েছে।  পিপার স্প্রে ছিটিয়ে প্রয়োজনে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেওয়া হবে।

হংকংয়ের পুলিশ এক টুইট বার্তায় জানিয়েছে, পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণ অবস্থানের বাইরে চলে যাচ্ছে। বিক্ষোভকারীদের সরে যেতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।  যদি তারা সরে না যায় তাহলে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গত ৯ জুন বন্দি বিনিময় সংক্রান্ত বিলের প্রস্তাব করা হয়।  প্রস্তাবিত বিলটির বিষয়ে চীনা আইন পরিষদে বুধবার দ্বিতীয় বিতর্ক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও তা পিছিয়েছে।

হংকংয়ের পার্লামেন্টে চীনপন্থী হিসেবে পরিচিত আইনপ্রণেতারা অপরাধী প্রত্যাবাসন আইনের প্রস্তাব করেছেন।  আইনটিতে পলাতক অপরাধীদের বিচারের জন্য চীনে প্রত্যাবাসনের বিধান রাখা হয়েছে।

সমালোচকদের দাবি, এই আইনটি চীনকে তার রাজনৈতিক বিরোধীদের হংকং থেকে বেইজিংয়ে নেওয়ার  সুযোগ করে দেবে।  এছাড়া এতে যেমন অপরাধীরা ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত হবে এবং হংকংয়ের ওপর চীনকে হস্তক্ষেপের সুযোগ করে দেবে।

এদিকে চীনের এ সিদ্ধান্তে এরইমধ্যে উদ্বেগ জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্র।

হংকংয়ের গণমাধ্যম জানিয়েছে, আইন পরিষদে আগামী ২০ জুন ওই বিলটি চূড়ান্তভাবে পাস করা হবে।

  • প্রবাস কথা ডেস্ক 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.