Featured বাংলাদেশ থেকে

মিয়ানমারে আহতদের আনতে ঢাকা থেকে গেল বিমানের বিশেষ ফ্লাইট

দুর্ঘটনার কবলে পড়া বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের আহত যাত্রীদের দেশে ফিরিয়ে আনতে মিয়ানমার গেল বিমানের বিশেষ ফ্লাইট ড্যাশ-৮ কিউট-৪০০।

বুধবার রাত ১১টা ২০ মিনিটে বিমানটি শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়ে যায়। বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চিফ অব ফ্লাইট সেফটি ক্যাপ্টেন সোয়েব চৌধুরীর নেতৃত্বে ফ্লাইটটিতে ক্যাপ্টেন হিসেবে রয়েছেন আনিস রয়েছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে বুধবার সন্ধ্যায় মিয়ানমারের ইয়াংগন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ড্যাশ ৮-কিউ৪০০ উড়োজাহাজ।

মিয়ানমার থেকে সংবাদদাতা আবদুল আওয়াল খান প্রবাস কথাকে জানিয়েছেন, বিমান বাংলাদেশ এযারলাইন্সের ৮ কিউ ৪০০ মডেলের উড়োজাহাজ স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭ টায় অবতরণের চেষ্টা করছিল৷ এ সময় প্রচুর বৃষ্টি, বজ্রপাতের সাথে উচ্চগতির বাতাস ছিলো৷ ধারণা করা হচ্ছে, এর ফলে অবতরনের সময় উড়োজাহাজটি ছিটকে পাশের ঘাসের উপর আচড়ে পরে৷

বিমানটিতে পাইলট ও কেবিন ক্রুসহ মোট ৩৪ জন আরোহী ছিলেন। ৩০ জন আরোহীর মধ্যে একজন শিশু, পাইলট ও কেবিন ক্রু ছিলেন আরও চারজন। এদের মধ্যে আহত ১৯ জনকে ইয়াংগুনের নর্থ ওকলাপা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ১১ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়।

মিয়ানমারে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মঞ্জুরুল খান চৌধুরী গণমাধ্যমকে জানান, খবর পেয়ে দূতাবাস কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গেছেন। কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে তারা নিশ্চিত হয়েছেন। তবে নিহতের কোনো খবর নেই।

এদিকে ছিটকে পড়া বিমানের কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘুরছে৷ বাংলাদেশ, মিয়ানমার, ক্যানাডা, চীন, ভারত, ফ্রান্স ও সুইজারল্যান্ডের যাত্রী ওই বিমানটিতে ছিলেন বলে বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে উল্লেখ করা হয়৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.