Featured মধ্যপ্রাচ্য রঙ্গের দুনিয়া

২৩ হাজার কোটি ডলার ব্যয়ে কৃত্রিম পাহাড় বানাচ্ছে দুবাই!

শেয়ার করুন

অসাধারণ সব স্থাপত্য নির্মাণ করে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিতে বরাবরই এগিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাত। বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু টাওয়ার বুর্জ খলিফা কিংবা পাম গাছের আকারে তৈরি আস্ত একটা দ্বীপ পাম জুমেইরা, সবই সংযুক্ত আরব আমিরাতের অংশ। তবে এবার আস্ত এক পাহাড় তৈরি করতে যাচ্ছে দুবাই!

দেশজুড়ে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়াতে কৃত্রিম পাহাড় বানানোর পরিকল্পনা নিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। এই পরিকল্পনা নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছে মার্কিন সংস্থা ‘ন্যাশনাল সেন্টার ফর এটমসফেরিক রিসার্চ’ বা (NCAR)।

মূলত কি ধরনের পাহাড় তৈরি করলে আবহাওয়ায় কি ধরনের প্রভাব পড়বে- এ নিয়েই চলছে গবেষণা। এমনকি কৃত্রিম পাহাড়ের উচ্চতা, ঢাল- সবটাই খতিয়ে দেখা হচ্ছে। গবেষণার পর রিপোর্ট এর ভিত্তিতেই শুরু হবে কাজকর্ম।

পুরো আরব জুড়ে বৃষ্টি একটি বড় সমস্যা। গ্রীষ্মে খুব হাতে গোনা কয়েকদিনই বৃষ্টি হয় আরবে। এর ফলে বিভিন্ন জায়গায় ক্রমশ পানির  সমস্যা তৈরি হতে শুরু করেছে স্বাভাবিকভাবেই।

গত কয়েক বছরে বৃষ্টির জন্য কৃত্রিম ব্যবস্থা করতে বিপুল পরিমাণ অর্থ খরচ হয়েছে আরবের। এছাড়া কৃত্রিম মেঘ তৈরি করার ফলে গত বছর ২৪ ঘণ্টায় প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়, যা বন্যা পরিস্থিতি তৈরি করে।

এতে বিমান পর্যন্ত বাতিল করতে হয়েছে। সাধারণত পাহাড়ের একটি ঢালে বৃষ্টি হয় ও অপর দিক শুকনো থাকে। তাই ধারণা করা হচ্ছে কৃত্রিম পাহাড় তৈরি করলে পর্যাপ্ত বৃষ্টি হবে।

তবে ১.২ মাইল উচ্চতার পাহাড় তৈরি করতে আনুমানিকভাবে  ২৩ হাজার কোটি ডলার খরচ হবে। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে ইতিমধ্যেই ৪ লক্ষ ডলার খরচ করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত।

  • সুমাইয়া হোসেন লিয়া, প্রবাস কথা, ঢাকা।
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.