Featured অস্ট্রেলিয়া ওশেনিয়া রঙ্গের দুনিয়া

সিডনির ব্যাংক্সটাউন; বারো মাসে তেরো পার্বণ!

শেয়ার করুন

আজ সকালে জিমে যাওয়ার সময় ব্যাংক্সটাউন শপিং মলে পা দিতেই চোখে পড়লো ছাদের উপর ঝুলন্ত চাইনিজ লন্ঠনবাতি! বুঝতে পারলাম বারো মাসে তেরো পার্বণের এই ব্যাংক্সটাউনে নিশ্চয়ই আবার কোন পার্বন আসন্ন। মনে হলো সামনে হয়তো চাইনিজ নিউ ইয়ার, ইন্টারনেটে একটা সার্চ দিতেই দেখলাম আমার সন্দেহটাই ঠিক! আগামী ২৫ জানুয়ারি শনিবার হচ্ছে ২০২০ সালের চাইনিজ লুনার নিউ ইয়ার।

গোটা অস্ট্রেলিয়াতে চীনাদের বিশাল এক কমিউনিটি আছে। বলাই বাহুল্য যে, প্রায় সাড়ে ৫২ লক্ষ জনসংখ্যার সিডনি তাদের মধ্যে অন্যতম। তবে ব্যাংক্সটাউন শপিংমলে এই ধরনের জাঁকজমক সজ্জার মাধ্যমে চাইনিজ লুনার নিউ ইয়ার পালন শুরু হয়েছে বগত ৫-৬ বছর আগে, এবং এটা মূলত সিডনিতে আসা এই মৌসুমে হাজার হাজার চাইনিজ পর্যটকে আকর্ষণের জন্যই। গত বছর এই শপিংমলে বাদ্য-বাজনা দিয়ে ড্রাগন ড্যান্স অনুষ্ঠিত হয়েছিল, মনে হচ্ছে এবারও তাই হবে।

চাইনিজ লন্ঠন, ব্যাংক্সটাউন শপিং মল, সিডনি।

যদিও পৃথিবীর অনেক দেশের মতোই ডাউনটাউন সিডনির “চায়না টাউন” এর অস্তিত্ব অনেক পুরানো, কিন্তু “চাইনিজ লুনার নিউ ইয়ার” পালনের মাধ্যমে মূলত নিউ সাউথ ওয়েলসের অর্থনীতিতে বিশাল একটা অর্থের যোগান শুরু হয়েছে সাম্প্রতিক বছরগুলি থেকে।

প্রতিবছর এই সময় সিডনিতে আগত চাইনিজ ট্যুরিস্টরা প্রচুর কেনাকাটা করে থাকে। গেল বছর এই উপলক্ষে স্থানীয় অর্থনীতিতে যোগ হয়েছিল ৪২ মিলিয়ন ডলার। এই দিনটি পালনের সাথে অর্থনৈতিক সংযোগ যতটা, সেই তুলনায় সাংস্কৃতিক সম্পর্ক খুবই সামান্য।

ভোগবাদী সমাজ ব্যবস্থায় অর্থই সকল কর্মকাণ্ডের মূল চালিকা শক্তি। তাই সংস্কৃতির ভাঙা-গড়াও চলে অর্থনীতিকে কেন্দ্র করেই।

  • মহিউদ্দিন কিবরিয়া, সিডনি, অস্ট্রেলিয়া।
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.