Featured বাংলাদেশ থেকে

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী অপহরণ; গ্রেফতার ২

শহীদুল ইসলাম ভাগ্য পরিবর্তনের আশায় মালয়েশিয়াতে যান। যাওয়ার পর মাহবুব হোসেন নামে এক প্রবাসী বাংলাদেশীর সাথে তার পরিচয় হয়। মাহবুব হোসেন তাকে কাজ দেয়ার কথা বলে মালয়েশিয়াতে অবস্থানরত সহযোগীদের মাধ্যমে তাকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে আটকে রাখে এবং নির্যাতন করে।

পরবর্তীতে অপহরণকারীরা দেশে  তার স্বজনদের ফোন করে শহীদুলের আর্তনাদ শুনিয়ে মুক্তিপন দাবী করে এবং মুক্তিপণের টাকা দেয়ার জন্য একাধিক বিকাশ নম্বার প্রদান করে। তার স্বজনরা মুক্তিপণের টাকা দেয়ার পর চক্রটি তাকে ছেড়ে দেয়। পরে এই ঘটনার ভিত্তিতে শহীদুল ইসলামের ভাই ২০১৬ সালে পাবনার আমিনপুর থানায় একটি মামলা করেন।

একসময় মামলাটি  সিআইডির কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরে এই ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে মাহবুবের সহযোগী হামিদ হোসেন (২৪) কে গত (৩ জুলাই) এবং তার সহযোগী আমান উল্লাহ (৪৩) কে (৩ আগস্ট) কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলা থেকে গ্রেফতার পুলিশ।

জানা যায়, টেকনাফ থানা এলাকার বাসিন্দা মাহবুব হোসেন মালয়েশিয়াতে দীর্ঘদিন অবস্থান করে, একসময় মালয়েশিয়ার সহযোগীদের মাধ্যমে একটি চক্র তৈরি করে। সেই চক্রের মাধ্যমে মালয়েশিয়ায় যাওয়া অসহায় মানুষদেরকে ভাল কাজ দেওয়ার কথা বলে কৌশলে তাদের অপহরণ করে। তারপর তাদের নির্যাতন করে স্বজনদের ফোন করে অপহৃতদের আর্তনাদ শুনিয়ে মুক্তিপন দাবী করে। স্বজনরা বাঁচানোর জন্য দাবীকৃত অর্থ দিতে রাজি হলে বাংলাদেশে অবস্থানরত তার সহযোগীদের মাধ্যমে টাকা সংগ্রহ করে।

শহিদুলের স্বজনের কাছ থেকে আসামীরা ৮টি বিকাশ নাম্বারে  মোট ২ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। আর এই বিকাশ নম্বরগুলোর মধ্যে ৪টি সিম খোরশেদ এর নামে রেজিস্ট্রেশন করা, ১টি সিম হামিদের নামে রেজিষ্ট্রিতৃক এবং বাকি রেজিষ্ট্রিকৃত সিমগুলোর বিকাশ হিসাব বর্তমানে মালয়শিয়াতে পলাতক  মাহাবুবের নামে পরিচালিত হয়।

পুলিশ জানায়, আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা সিমগুলো তাদের নামে রেজিষ্ট্রিকৃত বলে স্বীকার করে এবং তারা মাহবুবের নির্দেশে সংঘটিত হয়ে এ ধরনের কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। আটককৃত আসামী আমান উল্লাহ আমান বর্তমানে মাহবুব ষ্টোর নামীয় দোকানটির পরিচালনাসহ খোরশেদ ও মাহবুব নামে নিবন্ধিত সকল সিম দিয়ে ব্যবসা ও সকল অবৈধ কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। চক্রের অন্যান্য সদস্যদের আইনের আওতায় আনার লক্ষ্যে মামলাটি তদন্তাধীন রয়েছে।

আরও পড়ুন- ভ্রমণের গল্পে জীবনের গল্প; ‘জ্যাকসন হাইটস’ পর্ব- ০৪

প্রবাসীদের সব খবর জানতে; প্রবাস কথার ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.