Featured এশিয়া মালয়েশিয়া রঙ্গের দুনিয়া

মালয়দের বিয়ের রীতিনীতি

শেয়ার করুন

অতি চাক‌চিক্যতা, অতি মাত্রায় জৌলুস কোনটাই দেখা যায়না মাল‌য়দের বি‌য়ে‌তে। মুসলিম রী‌তি‌ আর ঐতিহ্যবাহী মালয় পোশাক প‌রে বর কনের বিবাহ সম্পন্ন হয় প্রায় সাদামাটা। 

মাল‌য়দের বি‌য়ের পোশা‌কে সি‌ল্কের আধিক্য থা‌কে, আর থা‌কে র‌ঙ্গিন সব কাপ‌রের সমাহার। সা‌থে ফুল দি‌য়ে সাজা‌নো হয় বি‌য়ের মঞ্চ, উপ‌স্থিত থা‌কেন বর-ক‌নে উভ‌য়ের প‌রিবার ও নিকট আত্নীয় স্বজন কিংবা বন্ধু-বান্ধব।

আমা‌দের দে‌শের ম‌তো ঋণ ক‌রে বাবাকে মে‌য়ে বি‌য়ে দি‌তে হয় না। এখা‌নে বরং মে‌য়ের বা মে‌য়ের প‌রিবা‌রের চা‌হিদা ম‌তো দেন মোহরানা দা‌বি করা হয়। ত‌ারপর দু’প‌ক্ষের আলোচনায় ও পা‌ত্রের সামর্থ অনুযায়ী নির্ধারন করা হয় ‌মোহরানা। যার সবটাই নগ‌দ প‌রি‌শোধ কর‌তে হয় ক‌নের কা‌ছে।

মালয় বর-কণের সাথে লেখক, ডান থেকে প্রথম।

মূলত ক‌নের মোহরানার টাকা দি‌য়েই ক‌নে প‌ক্ষের বি‌য়ের আনুষ্ঠা‌নিকতা সম্পন্ন হয়। আর অব‌শিষ্ট টাকা ক‌নের হা‌তে বু‌ঝি‌য়ে দেয়া হয়।
আগত অতি‌থিদের ঐতিহ্যবাহী সব খাবার প‌রি‌বেশন করা হয়। যার ম‌ধ্যে মি‌ষ্টি জাতীয় খাবা‌রের প্রাধান্য থা‌কে বে‌শি।

অন্যান্য সম্প্রদা‌য়ের ম‌তো ক‌নের সন্তান ধার‌নের জন্য ‘সাধ’ খাওয়ানোর রীতি প্রচলিত আছে মাল‌য়‌দের ম‌ধ্যেও! ত‌বে মালয়েশিয়ায় বিয়ের অনুষ্ঠানের সব ধাপেই থাকে সন্তান ধারণের ইঙ্গিত। বিয়ের আগে, বরের তরফ থেকে কনের জন্য পাঠানো হয় সাধের খাবার ও উপহার। বিয়েতে নিমন্ত্রিতদের দেওয়া হয় রঙিন ডিম, যা সন্তান ধারণের চিহ্ন।

মজার বিষয় হ‌চ্ছে, এ দে‌শে বি‌য়ের পর ক‌নে পা‌ত্রের বা‌ড়ি যাবার আগে পাত্রই থে‌কে য‌ায় ক‌নের বা‌ড়ি। কিছুটা ঘর জামাই এর ম‌তো। কিন্তু বর্তমা‌নে সেটা তেমন মানা হয় না। কারন প্র‌ত্যে‌কেই যার যার স্থা‌নে স্ব‌-নির্ভর হ‌য়েই বি‌য়ে ক‌রেন।

আমা‌দের দে‌শে প‌রিবা‌রের বড় ছে‌লে‌কে যেমন পু‌রো সংসা‌রের গানি টান‌তে হয়, এখা‌নে তেমনটা হয় না। এখা‌নে হাই স্কুল শেষ হ‌লেই খন্ডকালীন কাজ কর‌তে হয়। যার যার আয়ের উপর ভি‌ত্তি ক‌রে তার জ‌ীবন চ‌লে, কা‌রো উপর কেউ অতিমাত্রায় নির্ভরশীল না, ত‌বে ক্ষেত্র বি‌শে‌ষে ভিন্ন ভিন্ন হ‌তে পা‌রে।

  • সোহেল রানা ফাহিম, কুয়ালালামপুর, মালয়েশিয়া 

আরও পড়ুন- যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর প্রথম ঈমাম বাংলাদেশী

প্রবাসীদের সব খবর জানতে; প্রবাস কথার ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.