Featured ইউরোপ ইতালী এশিয়া বাংলাদেশ থেকে মধ্যপ্রাচ্য

যারা দেশে এসে আটকে গেছেন, তাদের ভিসার মেয়াদ বাড়বে!

শেয়ার করুন

করোনা ভাইরাস নিয়ে চিন্তিত রয়েছেন আমাদের দেশের প্রবাসীরা। কর্মসংস্থান ও ভিসার মেয়াদ নিয়ে বিভিন্ন ধরণের ভাবনা ও ভ্রান্ত ধারণা থেকে বিরত থাকতে একটি জরুরি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশের ‘প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়’। বিজ্ঞপ্তিটি তুলে ধরা হলো-

১। যেসকল অভিবাসী কর্মী ছুটিতে বা অন্য কোন কারণে দেশে এসেছেন এবং যারা নতুনভাবে কর্মসংস্থান নিয়ে বিদেশে যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করছেন, তাদের ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন না হওয়ার অনুরোধ করা হলো। পরবর্তীতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এ ধরণের ভিসার মেয়াদ বর্ধিত করার বিষয়ে বিভিন্ন দেশ হতে ইতোমধ্যে আশ্বাস পাওয়া গেছে।

২। বিদেশে অবস্থানরত প্রবাসী কর্মীকে করোনা ভাইরাস নিয়ে আতংকিত না হয়ে এর প্রতিরোধ ও মোকাবেলায় সংশ্লিষ্ট দেশের নির্দেশনা/ অনুশাসন কঠোরভাবে মেনে চলতে এবং নিজের, পরিবারের ও দেশের জনগনের স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তার স্বার্থে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত স্ব স্ব দেশে অবস্থান করতে অনুরোধ করা হচ্ছে। প্রবাসী কর্মীদের দেশে অবস্থানরত পরিবার পরিজন এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মীদের অনুরোধ জানাতে পারেন।

জরুরি বিজ্ঞপ্তি

৩। একান্ত অনিবার্য না হলে প্রবাসী কর্মীগণকে আন্তঃদেশীয় চলাফেলা সামতিকভাবে বন্ধ রাখার অনুরোধ করা হচ্ছে। এ বিষয়েও দূতাবাস সমূহে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করা হচ্ছে।

৪। যে সকল প্রবাসী কর্মীদের জন্য কোয়ারেন্টাইন প্রযোজ্য তাদের তা দায়িত্বশীলতার সাথে পালন করতে হবে। আপনার ও আপনার পরিবারের স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তার স্বার্থে এ নির্দেশনা আবশ্যিকভাবে পালনীয়।

৫। প্রবাসী কর্মী ও তাদের পরিবারের কল্যাণার্থে সংশ্লিষ্ট যে কোন তথ্য বা জিজ্ঞাসার জন্য প্রবাস বন্ধু কল সেন্টার (০১৭৮৪-৩৩৩৩৩৩, ০১৭৯৪-৩৩৩৩৩৩, ০২-৯৩৩৪৮৮৮) এ যোগাযোগ করতে পারেন (সপ্তাহের ৭ দিন ২৪ ঘন্টা)।

৬। দেশে জরুরি প্রয়োজনে স্বাস্থ্য পরামর্শ পেতে ১৬২৬৩ অথবা ৩৩৩ নম্বরে কল করুন।

৭। বিদেশ ফেরত কিংবা বিদেশ গমনেচ্ছু প্রবাসী কর্মী ও তাদের পরিবারসহ সকল নাগরিক কর্তৃক করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও মোকাবেলায় সরকার নির্ধারিত করণীয়সমূহ কঠোরভাবে অনুসরণ করতে হবে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে ১৭ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের বিদেশফেরত অথবা বিদেশফেরত ব্যক্তির সংস্পর্শে ছিলেন। এ ঘটনায় জনসাধারণের স্বাস্থ্যগত দিক বিবেচনায় প্রবাসীদের দেশে ফিরতে নিরুৎসাহিত করছে সরকার।

  • সুমাইয়া হোসেন লিয়া, প্রবাস কথা, ঢাকা।
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.