Featured বাংলাদেশ থেকে

একাদশ শ্রেণির ভর্তির নিশ্চায়ন শুরু হচ্ছে আগামীকাল

গতকাল ৯ই জুন রবিবার রাতে প্রকাশিত হয়েছে একাদশ শ্রেণির কলেজ আবেদনের প্রথম ধাপের ফলাফল। এ বছর মাধ্যমিক পরিক্ষা দেওয়া শিক্ষার্থীদের মুঠোফোনে এসএমএসের মাধ্যমে এই তথ্য জানাচ্ছে শিক্ষাবোর্ড। আজ সোমবারের মধ্যেই পুরো তালিকার তথ্য প্রকাশ করা হবে। এক্ষেত্রে  আগামীকাল মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে কলেজে ভর্তি নিশ্চায়ন করা যাবে।

কলেজে ভর্তির যেকোনো তথ্যাবলীর জন্য রয়েছে ভর্তি সংক্রান্ত ওয়েবসাইট www.xiclassadmission.gov.bd । এই ওয়েবসাইটের সাহায্যে খুব সহজে ফল দেখার সুযোগ পাচ্ছে শিক্ষার্থীরা। এক্ষেত্রে  আবেদনকারীর রোল নম্বর, বোর্ড, পাসের সাল ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়েই জানা যাবে বোর্ড থেকে নির্ধারিত কলেজের নাম। ভর্তি নিশ্চায়নের পদ্ধতিও মঙ্গলবার সকাল ৯টার পূর্বে এই ওয়েবসাইটে জানানো হবে।ত

শিক্ষা বোর্ড জানিয়েছে, প্রথম মেধাতালিকায় মনোনীত শিক্ষার্থীদের আগামীকাল মঙ্গলবার (১১ জুন) সকাল ৯টা থেকে ১৮ জুনের মধ্যে তাদের ভর্তি নিশ্চিত করতে হবে। আর এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে টেলিটক ও শিওর ক্যাশের মাধ্যমে বোর্ডের রেজিস্ট্রেশন ফি ১৯৫ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই প্রক্রিয়ায় ভর্তি নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হলে তার মনোনয়ন বাতিল বলে গণ্য হবে। পাশাপাশি তার আবেদনটিও বাতিল হয়ে যাবে।

এবছর গত ১২ মে থেকে ২৩ মে পর্যন্ত ভর্তির জন্য অনলাইন ও মোবাইলে এসএমএস করে কলেজে ভর্তির আবেদনের সুযোগ পায় এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা। একজন শিক্ষার্থী অনলাইনে ন্যূনতম ৫টি থেকে সর্বোচ্চ ১০টি কলেজের জন্য আবেদন করার সুযোগ পেয়েছিল। এই আবেদনের ভিত্তিতে শিক্ষাবোর্ডের মাধ্যমে ১ টি কলেজের আবেদন গৃহীত হয়েছে। তবে কোনো শিক্ষার্থী যদি এই বোর্ডকর্তৃক নির্ধারিত কলেযে ভর্তি হতে ইচ্ছুক না হয় তবে পুনরায় আবেদন করতে পারবে।

এ বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ শিক্ষার্থী অংশ নেয়।  মোট শিক্ষার্থীর মধ্যে ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ ছাত্রী এবং ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১ ছাত্র অংশ নিয়েছিল। এ বছরের পরীক্ষায় সারাদেশে গড় পাসের হার ৮২ দশমিক ২০ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে এক লাখ ৫ হাজার ৫৯৪ শিক্ষার্থী।

  • সুমাইয়া হোসেন লিয়া, প্রবাস কথা, ঢাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.