Featured বাংলাদেশ থেকে রঙ্গের দুনিয়া

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মোবাইল অ্যাপ; থাকছে যে সুবিধা

শেয়ার করুন

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সেবার মান খুব উন্নত না হলেও মান বাড়াতে চেষ্টার কমতি রাখছে না কর্তৃপক্ষ। এরই ধারাবাহিকতায় রাষ্ট্রীয় পাতাকাবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের মোবাইল অ্যাপ চালু হতে যাচ্ছে খুব শীঘ্রই। বাংলাদেশ বিমান এথিক্স কমিটির মতে আগামী আক্টোবরেই বাজারে আসছে এই মোবাইল অ্যাপ।

গত শনিবার রাতে রাজশাহীতে এক সভায় বাংলাদেশ বিমান এথিক্স কমিটির সভাপতি ও পরিচালক জিয়াউদ্দীন আহমেদ গণমাধ্যমকে  জানিয়েছেন,

বিমানে জাতীয় সেবার মান বৃদ্ধি ও কার্যক্রমে স্বচ্ছতা আনতে বেশকিছু উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আসছে অক্টোবর বিমানে চালু হচ্ছে মোবাইল অ্যাপস।

তিনি আরও বলেন,

এ অ্যাপসের মাধ্যমে ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বের যে কোনো প্রান্ত থেকে যে কোনো ধরনের গ্রাহক পছন্দ অনুযায়ী সেবা ও বিমানের টিকিট কাটতে পারবেন। এ ছাড়াও যাত্রার টিকিট পরিবর্তন ও বাতিল, টিকিট ফেরত ইত্যাদি সুবিধা এই অ্যাপসে অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

জিয়াউদ্দীন আহমেদ আরও বলেন,

বিমানের সব টিকিট এখন উন্মুক্ত, কোনো টিকিট বরাদ্দ থাকে না। ওয়েবসাইটে সব টিকিট দেখার সুযোগ রয়েছে। পর্যায়ক্রমে টিকিট বিক্রি করা হয়। পেমেন্টের ক্ষেত্রে ক্রেডিট কার্ড, বিকাশ অথবা রকেটের মাধ্যমে মোবাইলে টাকা পরিশোধ করা যাবে।

বিমানে সেবার উন্নয়নের প্রসংগ তুলে ধরে পরিচালক বলেন,

শাহজালাল বিমানবন্দরে লাগেজ ডেলিভারিতে অভূতপূর্ব উন্নতি হয়েছে। যাত্রীরা এখন ২০ মিনিটের মধ্যেই লাগেজ ডেলিভারি পাচ্ছেন। এ ছাড়াও বিমান বহরে যুক্ত হয়েছে অত্যাধুনিক উড়োজাহাজ।

এছাড়া সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে মহাব্যবস্থাপক শাকিল মেরাজ বলেন,

বিমানে জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল বাস্তবায়নের মাধ্যমে কর্মীদের গ্রাহকসেবা প্রদানের ক্ষেত্রে জবাবদিহিতা ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা হয়েছে। কোনো গ্রাহক যদি সেবা পেতে সমস্যার মুখোমুখি হন, তাহলে সে বিষয়ে প্রতিকার পেতে ওয়েবসাইটে দেয়া ই-মেইলে অভিযোগ জানালে প্রতিকার পাবেন। এ লক্ষ্যে অভিযোগ নিষ্পত্তিকারী কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

বিমান বাংলাদেশ সম্পর্কে জেলা ব্যবস্থাপক মহিদুল জানান,

বিমানের অভ্যন্তরীণ রুটগুলোতে জাতীয় সেবা মানোন্নয়নে বিমান বহরে নতুন তিনটি ড্যাস-৮ উড়োজাহাজ যুক্ত হচ্ছে। আগামী মার্চ মাসে কানাডার উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বম্বার্ডিয়ার উড়োজাহাজগুলো বিমানকে সরবরাহ করবে।

এই সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন অনলাইন ট্রাভেলস এজেন্ট, রাজশাহী বিমান ব্যবস্থাপক, স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তা প্রমুখ।

  • সুমাইয়া হোসেন লিয়া, প্রবাস কথা, ঢাকা।
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.