Featured এশিয়া মালয়েশিয়া

বাংলাদেশীদের জন্য খুলছে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার

শেয়ার করুন

অবশেষে বাংলাদেশীদের জন্য খুলছে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার। সেইসাথে বন্ধ হচ্ছে সমালোচিত ১০ কোম্পানির সিন্ডিকেট প্রথা। নতুন নিয়মে লাইসেন্স পেলে যেকেউ বিদেশে কর্মী পাঠাতে পারবেন।

তবে চাকরির নিরাপত্তা, নির্দিষ্ট অভিবাসন ব্যয়সহ বেশ কিছু নীতিমালা অনুসরণ করছে দুই দেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।

বৈদেশিক কর্মসংস্থানে বাংলাদেশের বড় শ্রমবাজারের একটি মালয়েশিয়া। কিন্তু বারবরই এই শ্রমবাজারে এসেছে নানা রকম দুর্যোগ।

সর্বশেষ মালয়েশিয়া সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কিছু অসাধু কর্মকর্তার যোগসাজসে বাংলাদেশ থেকে নির্দিষ্ট ১০টি কোম্পানি কেবল দেশটিতে কর্মী পাঠাতে পারবে, এমন নিয়ম চালু করে একটি সিন্ডিকেট।

পরে দাবিরমুখে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ১০ কোম্পানির ওই সিন্ডিকেট প্রথা বাতিল করে দেয় মাহাতির মোহাম্মদের নতুন সরকার। ফলে চলতি বছরের আগস্ট থেকে তাই বন্ধ হয়ে যায় মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার।

তবে দেশটিতে বাংলাদেশী কর্মীদের বিপুল চাহিদা ও বাংলাদেশ সরকারের অব্যহত প্রচেষ্টার ফলে চলতি মাসেই ফের চালু হচ্ছে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার।

এ বিষয়ে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব রওনক জাহান সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘ইতিপূর্বে যে সমস্যাগুলো ছিল সেগুলো উত্তরণ করে, এখানে সত্যিকার অর্থে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারটাকে চালানোর জন্য মালয়েশিয়ার সরকার বদ্ধ পরিকর, আমরাও সেভাবে তাদের পরামর্শে কাজ করছি’।

তিনি আরও বলেন, আমরা আশা করছি, চলতি আগস্ট মাসেই মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার চালু হবে।

এদিকে নতুন এই যাত্রায় বন্ধ হচ্ছে ১০ কোম্পানির সিন্ডিকেট। এখন থেকে যেকোন বৈধ রিক্রুটিং এজেন্সি বাংলাদেশ থেকে কর্মী পাঠাতে পারবে। তবে চাকরির নিরাপত্তা, নির্দিষ্ট অভিবাসন ব্যয়ের শর্তসহ বেশকিছু নীতিমালা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

পূর্ব অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিয়ে কার্যকর পরিকল্পনা নেওয়া না হলে, এই বাজারে টেকসই উন্নয়ন হবেনা বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। বৈধপথে এবং সরকার নির্ধারিত ব্যয়ে মালয়েশিয়ায় যেতে চায় বাংলাদেশের কর্মীরা, সেজন্য নতুন করে এই শ্রমবাজারটি চালুর আগে সরকারকে এই দু’টি মৌলিক বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

  • প্রবাস কথা ডেস্ক 

আরও পড়ুন- আমিরাতে ঈদ উপলক্ষে মুক্তি পাচ্ছে ৬৬৯ কারাবন্দি

প্রবাসীদের সব খবর জানতে; প্রবাস কথার ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.