ফ্রান্সে বাংলাদেশী চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর শুরু যেভাবে

france-bangladeshi-movie-showe.jpg

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে প্রথম বাংলাদেশীর আগমন কবে থেকে? তা মাঝে মধ্যে কিছু লিখা থেকে জানা যায়। ১৭ শতকের শেষের দিকে জামর নামক এক কিশদ্ধ্যে, বাংলাদেশের ( তৎকালীন বৃটিশ ভারত উপমহাদেশ ) থেকে ১১ বছর বয়সী জামর ধরা পড়ে ইংরেজ দাস ব্যবসায়ীদের হাতে।  

এরপর মাদাগাস্কার হয়ে ফ্রান্সে আগমন সরাসরি তৎকালীন রাজপরিবারে জায়গা হয় তার। তাঁকে নিয়ে বইও লিখা হয় তিনি ফরাসি বিপ্লবে ভূমিকা রেখেছেন সেসব গল্প পরে হবে, বলছিলাম শিল্প সাহিত্য ছবি ও কবিতার দেশ ফ্রান্সে বাঙালির আগমন নিয়ে কথা।

এই জামর এর পর অনেক বাংলাদেশী হয়তো এসেছেন এই দেশে। উল্লেখযোগ্য বাংলাদেশী হচ্ছেন কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর প্যারিস ভ্রমন, মাইকেল মধুসূদন দত্ত, সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়, কিংবা প্রথম শহীদ মিনারের নির্মাতা প্রয়াত নভেরা আহমেদসহ সদ্য প্রয়াত আলোকচিত্র শিল্পী আনোয়ার হোসেন, চিত্র পরিচালক আমিরুল আহরাম, চিত্ৰ শিল্পী শাহাবুদ্দিন, মুকাভিনেতা পার্থ প্রতিম মজুমদার, বাউল গায়ক পবন দাশ বাউল।

প্রবাস কথার সুপরিচিত রবিশঙ্কর মৈত্রী দা, আরিফ ও কুমকুম রানা সহ, লালটিপ ও পরবাসীনী চলচিত্রের পরিচালক স্বপন আহমেদসহ আরো অনেকেই ফ্রান্সে বসবাস করে গেছেন। এখনও বসবাস করছেন, ফ্রান্সে বাংলা প্রামাণ্য চিত্র, আর্টফিল্ম ও কলকাতার অনেক ছবি বিভিন্ন উৎসবে প্রদর্শিত হয়েছে বহুবার, আমরা ১৯৯৭, ১৯৯৮ সালে সত্যজিৎ রায়ের পথের পাঁচালি ও অশনি সংকেত ফরাসি-জার্মান একটি টিভি চ্যানেলে দেখেছি।

২০০৯ সালে সোনার বাংলা নামের একটি সাংস্কৃতিক সংগঠন, ফ্রান্স এ মনপুরা ছবিটি প্রথম বাণিজ্যিক চলচ্চিত্র হিসেবে আমদানি করে। বর্তমান বাংলাদেশী অধ্যুষিত এলাকা অবেরভিলিয়ে -পনতা – কেত সোমার একটি সিনেমা হলে তিনদিন ব্যাপী প্রদর্শনের আয়োজন করে। এরপর থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার, অস্তিত্ব, আয়নাবাজি, অজ্ঞাতনামা, হালদাসহ অনেক বাংলাদেশী চলচ্চিত্রের মিছিল চলছে।

এই মিছিলের পথ সোনার বাংলা দেখিয়ে গিয়ে উদাহরণ তৈরি করলে, রেড বিডি কিছুটা পথ পাড়ি দেয়। এরপর গত তিন বছর ধরে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ফ্রান্সে ছড়িয়ে দেবার জন্য হাল ধরেন ফ্রঁসে আভেক রাব্বানীর উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা রাব্বানী খান কৌশিক ও তার কোম্পানি লো পোয়া মাল্টিমিডিয়া।

বাংলাদেশী চলচ্চিত্রকে প্রচার ও প্রতিষ্ঠিত করতে এই রাব্বানীর অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে। তাকে এই কাজে সহযোগিতা করছে ভারতীয় চলচ্চিত্রের পরিবেশক আনা ফিল্মস। এই ধারাবাহিকতায় মহান ভাষা আন্দোলনের কাহিনী নিয়ে তৈরী হওয়া চলচ্চিত্র ফাগুন হাওয়া। সর্বশেষ ফ্রান্সে মুক্তি পেতে যাচ্ছে এই চলচ্চিত্রটি। আগামী ১৭ ই মার্চ রবিবার সজে এলিজে এলাকার পাব্লিসিস সিনেমা হলে ফাগুন হাওয়া চলচ্চিত্রটি প্রদর্শিত হবে

আওয়াল রহমান, প্যারিস, ফ্রান্স

আরও পড়ুন – পর্তুগালে বাংলাদেশী কারী শিল্পের বিপ্লব !

প্রবাসীদের সব খবর জানতে; প্রবাস কথার ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.