Featured অন্যান্য এশিয়া রঙ্গের দুনিয়া

‘প্রি ওয়েডিং কোর্স’ ছাড়া বিয়ের অনুমতি দিবে না ইন্দোনেশিয়া!

শেয়ার করুন

বিয়ে একটি সামাজিক বন্ধন। দুটো মানুষ স্বেচ্ছায় এই বন্ধনে আবদ্ধ হতে পারলেও বর্তমানে ইন্দোনেশিয়ায় আর ঘটছেনা এই ব্যাপার। আগের মত দুজন মানুষের মতই নয় বরং সরকারের নিকট থেকে অনুমতি নিয়েই বাঁধতে হবে সংসার।

বিয়ের ক্ষেত্রে তিন মাসের ‘প্রি ওয়েডিং কোর্স’ করা বাধ্যতামূলক করতে যাচ্ছে ইন্দোনেশিয়া সরকার। বিবাহের উপর করা এই তিন মাসের কোর্সে পাশ করলেই মিলবে সরকারি প্রশংসাপত্র। আর তখনই গাঁটছড়া বাঁধতে পারবেন প্রিয় মানুষটির সাথে। তবে হাতে এখনো সময় আছে। আগামী ২০২০ সাল থেকে এই নিময় চালু করতে যাচ্ছে ইন্দোনেশিয়া।

ইন্দোনেশিয়ার‘হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড কালচারাল অ্যাফেয়ার্স কোঅর্ডিনেটিং’ দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিয়ের জন্য পূর্ববর্তী এই কোর্স একেবারে বিনামূল্যেই করা যাবে। এই কোর্সের সমস্ত খরচই বহন করবে ইন্দোনেশিয়ার সরকার। এছাড়া এই কোর্সে পাশ-ফেলের হিসাব একটু অন্যরকম। প্রথমবার পাশ করতে না পারলেও চিন্তার কিছু নেই। আবারও সুযোগ পাওয়া যাবে পরীক্ষা দেওয়ার।

এমনকি পাশ না করা পর্যন্ত পরীক্ষা দিতে পারবে যেকোনো পরীক্ষার্থী। তবে বিয়ে করার শর্ত একটাই। পাশ করলেই বিয়ে করার অনুমতি দিবে সরকার।

বিয়ের ক্ষেত্রে এই নতুন নিয়মের পেছনে রয়েছে বিবাহ বিচ্ছেদের বিষয়টি। ইন্দোনেশিয়ায় সম্প্রতি বিবাহ বিচ্ছেদের ঘটনা অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। বিবাহ বিচ্ছেদের কারণ হিসাবে সামনে এসেছে বিভিন্ন কারণে মনোমালিন্য, মানিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে সদিচ্ছার অভাব, সন্তান প্রতিপালনের ক্ষেত্রে অসহিষ্ণুতা ইত্যাদি খুঁটিনাটি বিষয়। তাই এই বিকল্প পথই বেছে নিয়েছে ইন্দোনেশিয়া সরকার।

  • সুমাইয়া হোসেন লিয়া, প্রবাস কথা, ঢাকা।
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.