Featured এশিয়া ভারত

প্রধানমন্ত্রীর নয়াদিল্লী সফর; সাত চুক্তি ও তিন প্রকল্প উদ্বোধন

শেয়ার করুন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে সাত চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। উদ্বোধন হয়েছে তিনটি যৌথ প্রকল্প। আজ শনিবার দুপুরে ভারতের রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন হায়দ্রাবাদ হাউসে বৈঠক শেষে দুদেশের মধ্যে শিক্ষা, সংস্কৃতি ও পানিসম্পদ বিষয়ে চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়। পরে দুই প্রধানমন্ত্রী যৌথভাবে বাংলাদেশের তিনটি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করেন।

যেসব বিষয়ে দ্বিপক্ষীয় চুক্তি হয়েছে সেগুলো হলো- উপকূলীয় অঞ্চলে নজরদারি বিষয়ে এমওইউ, ভারত থেকে পণ্য আমদানি-রপ্তানিতে চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহার নিয়ে স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি), ত্রিপুরার সাবরুম শহরে পানীয় জল সরবরাহ প্রকল্পের জন্য ফেনী নদী থেকে ভারতের ১.৮২ কিউসেক পানি প্রত্যাহার করে নেয়ার জন্য এমওইউ, বাংলাদেশকে প্রতিশ্রুত ভারতের লাইন অব ক্রেডিট (এলওসি) বাস্তবায়নে চুক্তি, হায়দ্রাবাদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে এমওইউ, সংস্কৃতি বিনিময় কর্মসূচি নবায়ন এবং যুব বিষয়ে সহযোগিতা নিয়ে এমওইউ।

এর আগে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন হায়দ্রাবাদ হাউসে পৌঁছলে শেখ হাসিনাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান নরেন্দ্র মোদি। পরে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসেন এই দুই সরকার প্রধান। বৈঠকে দুদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী ও ঊর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়া সীমান্তে হত্যা শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনা, সন্ত্রাস দমন, আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে পারস্পরিক সহযোগিতা বাড়ানো, গঙ্গা ও তিস্তার পানিবন্টন ছাড়াও সাতটি অভিন্ন নদীর পানি বন্টনে নতুন উদ্যোগ নেওয়া, বাংলাদেশের রপ্তানি পণ্যের ওপর আরোপিত কর প্রত্যাহারের মতো বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়।

এদিকে শনিবার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করে প্রতিবেশী বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে ‘সর্বোচ্চ গুরুত্ব’ দেয়ার বিষয়টি পুর্নব্যক্ত করেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।

ওয়ার্ল্ড ইকোনোমি ফোরামে (ডব্লিউইএফ) যোগ দিতে বৃহস্পতিবার সকালে নয়াদিল্লী পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

নয়াদিল্লীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ককে ‘সর্বোচ্চ গুরুত্ব’ দেয়া হচ্ছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনার দিল্লী পৌঁছানোর ছবিসহ একটি টুইট বার্তা প্রকাশ করে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

  •  প্রবাস কথা ডেস্ক
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.