Featured বাংলাদেশ থেকে

আসন্ন বাজেটে কমতে পারে যেসব পণ্যের দাম

শেয়ার করুন

২০১৯-২০২০ অর্থবছরের বাজেটে  প্রস্তাবিত কিছু পণ্য ও সেবার ওপর থেকে কর ও শুল্ক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। এর ফলে বেশ কিছু পণ্য ও সেবার দাম কমতে পারে আগের তুলনায়।

এ অর্থবছরে মূল্য সংযোজন কর অব্যাহতির প্রস্তাব করায় ১৫০ টাকা পর্যন্ত মূল্যমানের পাউরুটি, বিস্কুট ও কেকের দাম কমতে পারে। এ বছর অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাব অনুযায়ী, দেশে উৎপাদিত মোটরসাইকেলের দাম কমবে। স্থানীয় পর্যায়ে উৎপাদিত কৃষি যন্ত্রপাতিতেও কর অব্যাহতি দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে।

মূসক অব্যাহতি দেওয়ায় কৃষি যন্ত্রপাতি পাওয়ার রিপার, পাওয়ার টিলার, অপারেটেড সিডার, কম্বাইন্ড হারভেস্টর, লোরোটারি টিলার, লিস্ট পাম্পের দাম কমবে।

অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাব অনুযায়ী, ক্যানসার প্রতিরোধক ওষুধ উৎপাদনে ব্যবহৃত কাঁচামালে কর অব্যাহতি সুবিধা দেওয়া হয়েছে। এর ফলে ক্যানসার প্রতিরোধক ওষুধের দামও কমতে পারে। এবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে বলা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে দেশে বেশ কয়েক জায়গায় বড় ধরনের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।বজ্রপাতেও প্রতি বছর দেশে অনেক মানুষ মারা যাচ্ছে। এসব মোকাবিলায় অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রপাতি ও উপকরণ আমদানিতে সবার ক্ষেত্রে নতুন সুবিধা প্রদান এবং লাইটিং অ্যারেস্টারের ওপর বিদ্যমান আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। এর ফলে দাম কমতে পারে এসব পণ্যেরও।

শুধু তাই নয় স্বর্ণের আমদানির উপরও শুল্ক কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া শুল্ক কমে যাওয়ায় তুলা বীজ, পাম নাটস, রেফ্রিজারেটর শিল্পের স্টিল প্লেটের দামও কমতে পারে। আমদানি শুল্ক কমানোর প্রস্তাবে কমতে পারে চার্জার কানেকটর পিন, পোলট্রি, ডেইরি ও মৎস্য শিল্পে ব্যবহৃত তিনটি উপকরণ, ক্যানসার প্রতিরোধক ওষুধ উৎপাদনে ব্যবহৃত ৪৩টি উপকরণের দাম, নাইট্রোজেন, অক্সিজেন, কার্বন ডাই-অক্সাইড, লিফট প্রস্তুতকারী শিল্পে ব্যবহৃত আমদানি করা সকল উপকরণ, কমপ্রেসার প্রস্তুতকারী শিল্পে ব্যবহৃত আমদানি করা সব উপকরণ, জুতা শিল্পের বিভিন্ন উপকরণ।

  • সুমাইয়া হোসেন লিয়া, প্রবাস কথা, ঢাকা।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.