Featured অভিবাসন মধ্যপ্রাচ্য সৌদি আরব

ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের অর্থায়নে দেশে ফিরছেন গৃহকর্মী সুমি

শেয়ার করুন

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছিলেন সৌদি আরবে অবস্থানরত বাংলাদেশী গৃহকর্মী সুমি আক্তার। গত ৪ নভেম্বর (সোমবার) বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেদ্দা ও নাজরান পুলিশ প্রধান এর প্রচেষ্টায় অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় তাকে। কিন্তু উদ্ধার করা হলেও সুমির দেশে ফেরা নিয়ে তৈরি হয় শঙ্কা।

দেশে ফেরত পাঠানোর ক্ষেত্রে সুমির নিয়োগকর্তা কফিল, সৌদিতে সুমিকে আনায়ন বাবদ খরচকৃত ২২ হাজার সৌদি রিয়াল দাবি করেন। এই অর্থ পরিশোধ করা না হলে নিয়োগকর্তা কফিল গৃহকর্মী সুমিকে ফাইনাল এক্সিট বা দেশে যাওয়ার অনুমতি দিবেন না বলেও জানা যায়।

তবে এ সমস্যার সমাধান করতে এগিয়ে আসে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেদ্দা। আজ রবিবার বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেদ্দা থেকে প্রথম সচিব কে এম সালাহ উদ্দিন সাক্ষরিত এক জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়, নাজরান শহরের শ্রম আদালতে জেদ্দা কনস্যুলেট এর প্রতিনিধির উপস্থিতিতে সুমি আক্তারের এই সমস্যার শুনানি হয়।

শুনানিতে সুমির নিয়োগ কর্তার দাবিকৃত ২২হাজার সৌদি রিয়াল ফেরত দেয়ার শর্তটি না মঞ্জুর করা হয়। একই সাথে কনস্যুলেট এর অবদানের পরিপ্রেক্ষিতে সুমি কে তাৎক্ষণিক দেশে প্রেরণ বা ফাইনাল এক্সিট এর বিষয়টি মঞ্জুর হয়।

এর আগে জেদ্দা বাংলাদেশ কনস্যুলেট এর একটি প্রতিনিধি দল নাজরানে সুমির সাথে সাক্ষাত করেন। দ্রুততার সাথে উদ্ধার করায় কনস্যুলেট ও বাংলাদেশ সরকারকে ধন্যবাদ জানান সুমি।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানা যায়, জেদ্দা কনস্যুলেট এর প্রচেষ্টায় ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের ঢাকার অর্থায়নে সুমিকে দেশে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে শীঘ্রই দেশে ফিরবেন গৃহকর্মী সুমি আক্তার।

  • মোবারক ভূঁইয়া, প্রবাস কথা, জেদ্দা, সৌদি আরব।
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.