Featured বাংলাদেশ থেকে

ডেঙ্গুর সার্বিক চিত্র; এলাকা এবং বয়সভেদে আক্রান্তের হার কেমন?

শেয়ার করুন

আজ দিন পোহালে কাল ঈদ। রাজধানী ঢাকা ছেড়ে নাড়ির টানে বাড়ি ফিরে গেছে অর্ধেকের বেশি মানুষ। হয়তো কর্মের তাগিদে কিংবা পরিবারের সাথে ঈদ করতে রাজধানীতে এখনো আছেন বেশকিছু মানুষ। ঈদ চলে আসলেও এখনো রাজধানীবাসীর ডেঙ্গু নিয়ে চাপা উৎকণ্ঠা পুরোপুরি কাটেনি।

কোন এলাকায় ডেঙ্গুর প্রকোপ কেমন

ঢাকা শহরে ডেঙ্গুর প্রকোপ সবচেয়ে বেশি মগবাজার এলাকায়। মগবাজারে বসবাসকারী মানুষের মধ্যে ১০০ থেকে ১৩৭ জন মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন হাসপাতালে। দয়াগঞ্জ-হাটখোলা এলাকায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৭৫ থেকে ১০০ জন।

ডেঙ্গুর প্রকোপ রামপুরা-মালিবাগেও ছড়িয়ে পড়েছে। ৫০ থেকে ৭৫ জন রোগী ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন এই এলাকাগুলো থেকে।

আজিমপুর, ধানমন্ডি, ফকিরাপুল, বাসাবো, শান্তিনগর, শাহজাহানপুর এসব এলাকায় ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়েছে ২৫ থেকে ৫০ জন মানুষ।

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা

তবে ডেঙ্গুর প্রকোপ একেবারে নেই বললেই চলে তুরাগ থানা, বাড্ডা থানা এবং মাতুয়াইল এলাকায়। ০ থেকে ১ জন রোগী ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে এসকল এলাকায়। ঢাকা শহরের বাকি এলাকাগুলোতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১ থেকে ২৫ জন।

কোন বয়সী রোগীরা ডেঙ্গুতে বেশি আক্রান্ত

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীর মধ্যে বেশিরভাগেরই বয়স ১৫ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে। এদের মধ্যে পুরুষ রোগীর সংখ্যা ৬২৩ এবং নারী রোগীর সংখ্যা ২৪১।

২৫-৩০ বছর বয়সী রোগীর সংখ্যা ১৫-২৫ বছর বয়সী রোগীর চেয়ে সামান্য কম। ২৫-৩০ বছর বয়সী নারী রোগীর সংখ্যা ১৯৮ এবং পুরুষ রোগীর সংখ্যা ৪০৯ জন।

তবে ১-৫ বছর বয়সী ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশুদের সংখ্যাও শতাধিক। ১১২ জন ছেলে শিশু এবং ১৪০ জন ছেলে শিশু ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে।

ডেঙ্গুর ছোবল থেকে বাদ যায়নি শিশুরাও

হাসপাতালগুলোতে এখনো ডেঙ্গু রোগীর ভীড় কমেনি। যদিও ভর্তি হওয়া নতুন ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বিগত কয়েক সপ্তাহের তুলনায় বর্তমানে বেশ কম। গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৫ শতাংশ কমে এসেছে। সেইসাথে বেড়েছে ছাড়প্রাপ্ত পাওয়া রোগীর হারও। এই ছাড়পত্র পাওয়া রোগীর হার গত ২৪ ঘন্টায় দাঁড়িয়েছে প্রায় ৩৬ ভাগে। এছাড়া ডেঙ্গুতে আক্রান্ত মোট রোগীর প্রায় ৭৫ শতাংশই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

যাত্রাপথেও নেয়া হচ্ছে বাড়তি নিরাপত্তা

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত সারাদেশে ২ হাজার ২ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তবে বুধবার থেকে বৃহস্পতিবার ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ২ হাজার ৩২৬ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়। তারও আগের ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যা ছিল ২ হাজার ৪২৮ জন।

বুধবারের চেয়ে বৃহস্পতিবার হাসপাতালে ডেঙ্গু ভর্তি হতে আসা ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৫ শতাংশ কমেছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। গত শুক্রবার পরিস্থিতির আরো উন্নতি হয়েছে। শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে মোট ৯৪৭ জন। আর ঢাকার বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১ হাজার ৫৫ জন ডেঙ্গু রোগী। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয় মোট ১ হাজার ১৫৯ জন। ঢাকার বাইরের জেলাগুলোর হাসপাতালে ভর্তি হয় ১ হাজার ১৬৭ জন।

  • সুমাইয়া হোসেন লিয়া, প্রবাস কথা, ঢাকা।
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.