Featured রঙ্গের দুনিয়া

ক্লাউড সিডিং; কিভাবে কৃত্রিম বৃষ্টিপাত ঘটানো হয়?

শেয়ার করুন

আধুনিক প্রযুক্তির কল্যাণে বিশ্বের অনেক কিছুই এখন হাতের মুঠোয় তার মধ্যে ক্লাউড সিডিং বা কৃত্রিম বৃষ্টিপাত অন্যতম একটি কৃত্রিম বৃষ্টিপাত হলো প্রকৃতির ওপর বৈজ্ঞানিক প্রভাব খাটিয়ে জোর করে বৃষ্টি নামানো

অর্থাৎ ক্লাউড সিডিংয়ের উপাদানগুলো আকাশে উপযুক্ত স্থানে উড়োজাহাজে করে অথবা বিশেষ যন্ত্রের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া হয় মেঘের ভেতর দিয়ে যখন উড়োজাহাজটি যায় তখন সিলভার আয়োডাইড ছড়িয়ে দেয় এবং এর রাসায়নিকের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র দানাগুলোই মেঘের সিড হিসেব কাজ করে অর্থাৎ এসব দানায় ভাসমান জলীয়বাষ্পে পানি কণাগুলো জড়ো হয়ে বড় ফোঁটায় পরিণত হয় একসময় ওজন বেড়ে গিয়ে মহাকর্ষের টানে বৃষ্টি হয়ে ঝরে পড়ে

ক্লাউড সিডিংয়ে সাধারণ রাসায়নিক যেমন সিলভার আয়োডাইড, পটাশিয়াম আয়োডাইড অথবা শুষ্ক বরফ বা কঠিন কার্বন ডাই অক্সাইড ব্যবহার করা হয়। তরল প্রোপেন গ্যাসও ব্যবহার করা হয়। গ্যাস সিলভার আয়োডাইডের চেয়ে বেশি তাপমাত্রায় বরফের স্ফটিক তৈরি করতে পারে। তবে অনেক সস্তা বেশ কার্যকর প্রমাণিত হওয়ায় কাজে এখন সোডিয়াম ক্লোরাইড বা খাবার লবণের ব্যবহার বাড়ছে প্রতিনিয়ত

ক্লাউড সিডিং পদ্ধতিতে পরিবেশের কোনো ক্ষতি হয় না৷ কেননা যে পরিমাণ সিলভার আয়োডায়িড বৃষ্টির পানির সঙ্গে মাটিতে দ্রবীভূত হয়, তাতে রাসায়নিক ক্ষতিকর পদার্থের পরিমাণ এতই সামান্য, যে তাতে পরিবেশের কোনো ক্ষতি হয় না৷

সংযুক্ত আরব আমিরাতের আকাশ সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার সময় ক্লাউড সিডিং এর মাধ্যমে গত কয়েকদিনের বৃষ্টিপাত বলে দাবী জাতীয় আবহাওয়া অধিদপ্তরের। কৃত্রিম বৃষ্টিপাতের মাধ্যমে শুষ্ক আবহাওয়াকে সহনশীল করার নজির বিশ্বের অনেক দেশেই দেখা যায়

২০০৮ সালে বেইজিং অলিম্পিক গেমসের ঠিক আগে ক্লাউড সিডিংয়ের মাধ্যমে বৃষ্টি ঝরিয়েছিল চীন, যাতে পুরো আয়োজন বৃষ্টির কারণে বিঘ্নিত না হয়। চীনই সবচেয়ে বেশি কৃত্রিম উপায়ে বৃষ্টি ঝরায়। এমনকি অতিমাত্রায় কৌশল ব্যবহারের কারণে চীনের বিরুদ্ধে বৃষ্টি চুরির অভিযোগ করে প্রতিবেশীরা

সর্বপ্রথম ১৯৪৬ সালের ১৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে কৃত্রিম বৃষ্টিপাত ঘটানো হয়। কৃত্রিম বৃষ্টির এই নীতি ভিনসেন্ট শেইফারই প্রথমে আবিষ্কার করেন

  • কাজী ইসমাইল আলম, সংযুক্ত আরব আমিরাত।
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.