Featured রঙ্গের দুনিয়া

আবিষ্কৃত হলো ‘কৃত্রিম পাতা’; তৈরি করতে পারে ১০ শতাংশ বেশি জ্বালানি!

শেয়ার করুন

বর্তমানে পুরো বিশ্বের সবচেয়ে কঠিন সমস্যাটি হলো বৈশ্বিক উষ্ণায়ন। সাধারণ শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে বড় বড় নেতারাও এখন এই সমস্যা নিয়ে বেশ উদ্বিগ্ন। তবে সম্প্রতি এই সমস্যার একটি সমাধানের দ্বার উন্মোচন করতে যাচ্ছে বিজ্ঞানীরা।

বিজ্ঞানীরা এমন এক ‘কৃত্রিম পাতা’ উদ্ভাবন করেছেন যা বাতাস থেকে কার্বন ডাই অক্সাইড গ্রহণ করে জ্বালানি তৈরি করতে সক্ষম।

সালোকসংশ্লেষণের মাধ্যমে গাছপালার কার্বন ডাই অক্সাইড ভেঙে গ্লুকোজ ও অক্সিজেনে রূপান্তর করার প্রক্রিয়া থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে বিজ্ঞানীরা তৈরি করেছেন এই কৃত্রিম পাতা। অনেকটা সালোক সংশ্লেষণের মত একই প্রক্রিয়ায় কার্বন ডাই অক্সাইডকে ভেঙে মিথানল ও অক্সিজেনে রূপান্তরিত করতে পারে এই কৃত্রিম পাতা।

কার্বন ডাই অক্সাইড থেকে তৈরি এই মিথানলকেই জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা সম্ভব। এই কৃত্রিম পাতা উদ্ভাবন দলের প্রধান হলেন ইউনিভার্সিটি অব ওয়াটারলু এর অধ্যাপক ইমিন উ।

তিনি এ বিষয়ে বলেন,

এই প্রযুক্তি সৌরশক্তি থেকে ১০ শতাংশ জ্বালানিশক্তি পেতে সক্ষম হয়েছে। এটি প্রাকৃতিক সালোকসংশ্লেষণের চেয়ে অনেক বেশি । প্রাকৃতিকভাবে আমরা মাত্র এক শতাংশ জ্বালানি পেয়ে থাকি।

মূলত চারটি যৌগের রাসায়নিক বিক্রিয়ায় এই জ্বালানি উৎপাদন হয়- গ্লুকোজ, কপার অ্যাসিটেট, সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড ও সোডিয়াম ডোডিসাইল সালফেট। এগুলো পানিতে মিশিয়ে নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় উত্তপ্ত করা হয়। এর মধ্যে কার্বন ডাই অক্সাইড প্রবাহিত করা হয় এবং তার উপর সাদা আলোকরশ্মি ফেলা হয়। এতেই উৎপন্ন হয় কাঙ্ক্ষিত জ্বালানি।

ধারণা করা হচ্ছে এই কৃত্রিম পাতার বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হলেই এই আবিষ্কারের কদর ছড়িয়ে পড়বে সারাবিশ্বে।

  • সুমাইয়া হোসেন লিয়া, প্রবাস কথা, ঢাকা।
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.