Featured খেলা

মেসির গোলে আবারও উদ্ধার আর্জেন্টিনা

এবারের কোপা আমেরিকার আসরে ফেভারিট দল হিসেবে এক নম্বরে ছিল মেসির আর্জেন্টিনা। কিন্তু কেন যেন কোপার আসরে দল হিসেবে জ্বলে উঠতে পারছেনা “আর্জেন্টিনা”।

কলম্বিয়ার সাথে প্রথম ম্যাচে লজ্জাজনক হারের পর নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেও হোঁচট খেয়েছে আর্জেন্টিনা। গতকাল সকালে ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে প্রতিপক্ষ ছিল প্যারাগুয়ে। এই প্যারাগুয়ের সাথে ১-১ গোলে ড্র করে মাঠ ছেড়েছে আলবিসেলেস্তেরা।

গতকালের এই ম্যাচটি যেন ছিল পেনাল্টি নির্ভর এক ম্যাচ! হার আটকানোর পেছনে ফ্রাঙ্ক আরমানি পেনাল্টি ঠেকানো এবং অধিনায়ক লিওনেল মেসির পেনাল্টি থেকে আসা গোল- উভয়ের অবদান সবচেয়ে বেশি।

একদিকে প্রথম ম্যাচে কলম্বিয়ার বিপক্ষে হার, অপরদিকে প্যারাগুয়ের সঙ্গে ড্র করেন পয়েন্ট খোয়ানো, গ্রুপপর্ব পার হওয়া অনেকটাই কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে আর্জেন্টিনার জন্য

১৪বারের কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা মাত্র ১ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার সবার নিচে অবস্থান করছে। এদিকে দুই ম্যাচে জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষে আছে কলম্বিয়া। এরপরেই ২ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছে প্যারাগুয়ে।

আর্জেন্টিনার সমান পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে কাতার। বাংলাদেশ সময় ২৩ জুন রাত ১ টায় (২৪ শে জুন সকাল ১ টা) গ্রুপপর্বে শেষ ম্যাচে কাতারের মুখোমুখি হবে মেসি-আগুয়েরোরা। অবশ্য কলম্বিয়া-প্যারাগুয়ের খেলার দিকেও চোখ রাখতে হবে তাদের। তা না হলেও গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে হবে শেষ ২ আসরের রানার্সআপদের। এশিয়ান কাপের চ্যাম্পিয়ন কাতারকে হারিয়ে শেষ ৮ এ যাওয়ার সুযোগ আছে মেসিদের সামনে। সেই সুযোগ কাজে না লাগালে খুব বিব্রতকর অবস্থার মুখোমুখী হতে হবে আর্জেন্টিনাকে।

প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ড্রয়ের পর আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসি বলেন,

‘সত্যি কথা বলতে, এটা হতাশাজনক। আমরা ম্যাচটা জিততে পারিনি। তবে এখনো আমরা নকআউট পর্বে যেতে পারবো। আমরা জানি এটা কঠিন হবে।’

কোপা আমেরিকার পরবর্তী খেলা নিয়ে মেসি বলেন,

‘আমরা যদি গ্রুপপর্ব পার হতে না পারি, তা মেনে নেয়া যায় না। যখন গ্রুপের সেরা তৃতীয় দলও পরের রাউন্ডে যাবে। আমরা পরের রাউন্ডে খেলবো তাতে কোনো সন্দেহ নেই।’

ব্রাজিলের মিনেইরাওতে ম্যাচের ৩৭তম মিনিটে গোল হজম করে আর্জেন্টিনা। নিউক্যাসল ইউনাইটেডের মিডফিল্ডার মিগুয়েল আলমিরনের পাস থেকে প্যারাগুয়ের হয়ে গোল করেন রির্চাড সানচেজ। ম্যাচের ৫৭তম মিনিটে হ্যান্ডবলের সুবাদে পেনাল্টি পায় আর্জেন্টিনা। স্পটকিক থেকে গোল আদায় করে নেন বার্সেলোনা তারকা লিওনেল মেসি। এটি আর্জেন্টিনার জার্সিতে মেসির ৬৮তম গোল।

ম্যাচের ৬৩তম মিনিটে ডি-বক্সের ভিতরে আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার নিকোলাস ওটামেন্ডির ফাউলের শিকার হন প্যারাগুইয়ান ফরোয়ার্ড দার্লিস গঞ্জালেস। তাতে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। তবে দারুণ নৈপূণ্যে পেনাল্টি ঠেকিয়ে দেন আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক ফ্রাঙ্ক আরমানি।

দিন ম্যাচে মোট ১০টি শট নেয় প্যারাগুয়ে, বিপরীতে ৭টি শট নিতে পেরেছে মেসিরা।
মেসিদের এই হার আর্জেন্টিনার ২৬ বছরের শিরোপা খরা কাটানোর পথে বেশ কঠিন এক ধাক্কা। শেষবার ১৯৯৩ সালে কোপা আমেরিকার শিরোপা ঘরে তুলেছিল আর্জেন্টিনা। এরপর কোনো আর্ন্তজাতিক শিরোপার স্বাদ পায়নি এই দল।

২০০৪, ২০০৭, ২০১৫, ২০১৬ সালে চারবার ফাইনালে উঠেও শিরোপা বঞ্চিত হয় আসরের ১৪ বারের চ্যাম্পিয়নরা। তবে কোপা আমেরিকায় সর্বাধিক ১৫বার শিরোপা জয়ের রেকর্ড উরুগুয়ের। এবার মেসির উপর আস্থা করে ১৫তম শিরোপা ঘরে তোলার দিন গুনছে আর্জেন্টিনার সমর্থকেরা।

  • সুমাইয়া হোসেন লিয়া, প্রবাস কথা, ঢাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.