Featured আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র

“আমেরিকা থেকে বলছি, ভিনদেশে থাকি আমাদেরও ভয় হয়”

শেয়ার করুন

আমার এই ছোট্ট জীবনে আমি শুধু মহামারীর কথা অনেকের মুখে শুনেছি। মাঝে মাঝে বইয়ে পড়েছি, কিন্তু বাস্তববে মহামারী কি জিনিস ওটার কোন অভিজ্ঞতা ছিল না। অথচ আজ এই করোনা ভাইরাসের মহামারী দেখে নিজেই মাঝে মাঝে স্তব্দ হয়ে যাচ্ছি। দিনের পর দিন শুধু এই মহামারীর বেড়েই চলছে। খালি দিন গুনছি পৃথিবীটা কবে আবার শান্ত হবে?

কবে আবার পরিবার পরিজন সহ বাইরে গিয়ে খোলা আকাশের নিচে সবাই হেসে খেলে বেড়াবো? কবে আবার সবাই নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে হাজিরা দিবো? কবে আবার বন্ধু বান্ধব মিলে দূর বহু দূরে কোথাও বেড়াতে যাবো? কবে আবার দেখা হলেই কোলাকুলি করে নিজেদের ভালোলাগা এবং ভালোবাসা গুলো শেয়ার করবো? এইভাবেই অগণিত প্রশ্ন জমে আছে মনের ভিতরে, কবে পৃথিবীটা আবার ঠিক হবে?

হয়তো একটা সময় না একটা সময় পৃথিবী ঠিক হবে। এর মাঝে যে পরিমান ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে তা হয়তো ঠিক হয়ে উঠতে পৃথিবীর আরো কয়েক বছর লেগে যাবে। কিন্তু পৃথিবীর এই দুঃসময়ে পরিবারের যে মানুষগুলো পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছে তাদের এই ক্ষত কোন কিছু দিয়ে পূরণ করা সম্ভব নয়। মাঝে মাঝে মনে হয়, এই ক্ষুদ্র জীবনটা ঠিক এমনই। যেমন দেখা যায় অনেক সিজনে গাছে গাছে কত সুন্দর পাতা, ফুল এবং ফল, হঠাৎ করে একটা ঝড় এসেই অনেকগুলো পাতা, ফুল এবং ফল ঝরিয়ে দিলো।

হয়তো সে গাছগুলো ফুল, পাতা এবং ফল ঝরে গেলেই ধৈর্য্য নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকে সুদিনের আশায়। দেখা যায় পরের বছর ঠিক আবার নতুন পাতা গজায়, ফুল আসে, এবং গাছে গাছে ও ফলের সমারোহ। ঠিক তেমনি পরিবারের কেউ হারিয়ে গেলেও আমাদেরকে ধৈর্য্য ধরে সুদিনের অপেক্ষা করতে হয়। এটাই জীবন এবং এটাই বাস্তবতা।

আমেরিকাতে করোনা ভাইরাস খুব দ্রুত ছড়াচ্ছে, আমরা নিজের মাতৃভূমি ছেড়ে ভিনদেশে থাকি আমাদেরও ভয় হয়। আমাদেরও চিন্তা হয় কিভাবে এই মহামারী থেকে আমরা নিরাপদ থাকবো। সৃষ্টিকর্তা কতদিন হায়াৎ রেখেছেন জানি না, তবে ছোট্ট এই জীবনে চলার পথে অনেক মানুষের সাথে আমার পরিচয় হয়েছে। কখনোবা আড্ডায় বা গল্পে। কখনোবা এক জায়গায় থাকতে থাকতে।

আজকাল ভার্চুয়ালি ও আমাদের বন্ধুদের সংখ্যা অনেক। তো আপনাদের সাথে চলার পথে যদি কখনো কোন অন্যায় বা খারাপ কাজ করে থাকি তার জন্য ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। আশা করি আপনারা ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। মরতে তো একদিন হবেই সেটা করোনা ভাইরাস হোক বা স্বাভাবিক মৃত্যুই হোক। তদুপুরি ও সবার কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। আপনারা সবাই নিরাপদ থাকবেন।

সবাই সবার পরিবারকে এমন দুঃসময়ে সাপোর্ট দিয়ে যাবেন। হয়তো কোন একদিন আবার পৃথিবীতে নির্মল এবং বিশুদ্ধ বাতাস বইবে, আবার মানুষ মানুষকে ভালোবেসে কাছে টেনে নিবে, আমি অধম সেই প্রত্যাশাই করছি।

  • গোলাম মাহমুদ মামুন, ভার্জিনিয়া, যুক্তরাষ্ট্র। 
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.