Featured এশিয়া ভারত

আন্দামানে বিলুপ্তপ্রায় উপজাতিরা হত্যা করলো এক আমেরিকান নাগরিককে

শেয়ার করুন

ভারতের আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে বিলুপ্তপ্রায় এক উপজাতির হাতে খুন হয়েছে এক আমেরিকান নাগরিক। যেসব জেলে ঐ আমেরিকান নাগরিককে নর্থ সেন্টিনেল নামক দ্বীপে নিয়ে গিয়েছিল তারা জানিয়েছে, উপজাতি লোকজন ঐ আমেরিকান নাগরিককে তীর ছুড়ে মেরেছে এবং তার মৃতদেহ সৈকতে ফেলে গিয়েছে। জানা গেছে, নিহত ঐ আমেরিকান নাগরিকের নাম জন এ্যালেন চাও। তার বয়স ২৭ বছর এবং বাড়ি আলাবামায়।

সেন্টিনেলিস উপজাতি, ছবি: বিবিসি

ঐ উপজাতির নাম সেন্টিনেলিস। তারা একেবারেই বিচ্ছিন্ন অবস্থায় বসবাস করে। বাইরের বিশ্বের কারো ঐ উপজাতির সাথে যোগাযোগ করা আইনত: নিষিদ্ধ। কারণ, এতে রোগ সংক্রমণের আশঙ্কা থাকে। আন্দামান দ্বীপপুঞ্জের উপজাতি একেবারেই সভ্যতা বিচ্ছিন্ন এবং ধারণা করা হয় যে, তাদের সংখ্যা মাত্র ৫০ থেকে ১৫০ জনের মতো হবে।

আমেরিকান নাগরিককে অবৈধভাবে ঐ দ্বীপে নিয়ে যাওয়ার অপরাধে ৭ জন জেলেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো বলছে, খ্রিস্টান ধর্ম প্রচারের জন্যই হয়তো চাও ঐ দ্বীপে যেতে আগ্রহী ছিল। পুলিশের বরাত দিয়ে বিবিসির সাংবাদিক সুবীর ভৌমিক জানিয়েছেন, স্থানীয় জেলেদের সহযোগিতায় চাও এর আগে ৪/৫ বার ঐ নর্থ সেন্টিনেল দ্বীপে গিয়েছে।

ঐ দ্বীপে বসবাসকারী উপজাতিরা এমন যে, তারা অর্থের ব্যবহারও বুঝে না। অন্যদিকে, তাদের সাথে কোন ধরণের যোগাযোগের চেষ্টা করাও আইনগতভাবে অবৈধ। ২০১৭ সালে ভারত সরকার ঘোষণা করে যে, আন্দামান দ্বীপপুঞ্জের উপজাতিদের ছবি তোলা অথবা তাদের ভিডিও করাও শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এই অপরাধের জন্য ৩ বছল পর্যন্ত জেল হতে পারে। সংবাদ সংস্থা উল্লেখ করেছে যে, চাও গত ১৪ নভেম্বর প্রথম ঐ দ্বীপে যাওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। এর দুইদিন পর সে আবার চেষ্টা করে।

তাকে ঐ দ্বীপে নিয়ে যাওয়া প্রত্যক্ষদর্শী জেলেরা বলেছে-

‘উপজাতিরা চাওকে তীর ছুড়ে মারে এবং তার শরীরে বিদ্ধ হয়। তারপরও চাও হাঁটা অব্যাহত রাখে। উপজাতিরা দড়ি দিয়ে চাও এর গলা পেঁচিয়ে ফেলে এবং টেনে নিয়ে যায়। আমরা ভয় পেয়ে পালিয়ে আসি।’

এরপর ২০ নভেম্বর চাও এর দেহ সনাক্ত করা যায়। কিন্তু শরীরের সব অংশ এখনো পাওয়া যায়নি। সুবীর ভৌমিক বিবিসিকে আরো বলেন-‘

‘এটা পুলিশের জন্যও একটা কঠিন মামলা। কারণ, সেন্টিনেলিসদের গ্রেফতারও করা যাবে না।’

এই সেই দ্বীপ যেখানে সেন্টিনেলিস উপজাতির বসবাস, ছবি: বিবিসি
  • প্রবাস কথা ডেস্ক।
  • সূত্র: বিবিসি।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.