জার্মানী নরওয়ে ফিনল্যান্ড ফ্রান্স সুইডেন

যেসব দেশে সবচেয়ে বেশি সময় ধরে রোজা রাখতে হয়

শেয়ার করুন

রমজানে সিয়াম সাধনা মানুষের দেহ, মন এবং রূহকে সুস্থ, বিকশিত জাগ্রত করে তোলে রমযান মাসের দীর্ঘ ত্রি দিন আমরা সিয়াম সাধনা করি সূর্যোদয়ের পূর্ব থেকে শুরু করে সূর্যাস্ত পর্যন্ত আমরা না খেয়ে থাকি সুদীর্ঘ এক মাস রমযানের সাধনা অগ্নি পরীক্ষার ভেতর দিয়ে আল্লাহর অস্তিত্বকে বাস্তব করে, সত্য করে তোলে মানুষের জীবন এই মাসে মানুষ আল্লাহ্তায়ালার  প্রতিমুহূর্তের অস্তিত্ব অনুভব করে তাই তার সংযম কেবল পানাহারের বেলায় নয় সাধারণত প্রকাশ্যে মানুষের হাত, পা, চোখ, জিভ, কোন মন্দ কাজ করে না লোকলজ্জা, সমাজ রাষ্ট্রের ভয় আছে আর মানুষ তাই এসব কাজ গোপনে হরদম করে। কিন্তু এই পবিত্র রমযান মাসে আল্লাহর অস্তিত্বকে তিলে তিলে অনুভব করে বিধায়, তার হাত গোপনেও কোন মন্দ কাজ করে না বা  গোপনে কোন মন্দ কাজের জন্য অগ্রসরও হয় না। চোখ কোন কিছুর প্রতি লোভের নজরে তাকায় না, মুখে কোন মন্দ কথা উচ্চারণ করে না, কান কোন মন্দ কথা উদগ্রীব হয়ে শোনে না, তার হৃদয় মন্দ কথা বা চিন্তাকে মনে স্থান দেয় না কাজেই রমযানের সিয়াম কেবল পানাহার করার সিয়াম নয়, সিয়াম আমাদের হাতের, পায়ের, চোখের, কানের, অন্তরের এক কথায় গোটা সত্তার। শুধু লোক, দল বা রাষ্ট্রভয়ে মানুষ সংশোধন হয় না বরং মানুষ আপনাআপনি নিজের মধ্যে পরিশোধিত হয় তখনই খাঁটি মানুষ হয় ভাবে পরিশোধিত হলে সত্যকে হৃদয়ে গ্রহণ ধারণ করার ক্ষমতা জন্মে

বাংলাদেশ ছাড়াও যারা দেশের বাইরে অবস্থান করছেন তারাও যথাযথভাবে এই সিয়াম সাধনার চেষ্টা করেন মধ্যপ্রাচ্য বা আমেরিকার মতো ইউরোপেও শত কষ্টের কাজের মধ্যে থেকেও সবাই রোযা রাখেন মাঝে মাঝে কষ্টটা এত বেশি হয় যে, তা ভাষায় প্রকাশ করার মত না তারপরও আল্লাহ্ হুকুম পালনের জন্য দীর্ঘক্ষণ রোযা রাখেন এই রমযানে এই দীর্ঘক্ষণ রোযা রাখার  তালিকায় আছে বেশ কয়েকটি দেশের মানুষ। এর মধ্যে আইসল্যান্ডে রোজার দৈর্ঘ্য ২১ ঘণ্টা ০৩ মিনিট, ফিনল্যান্ডে ২১ ঘণ্টা ০২ মিনিট, জার্মানীতে ২০ ঘণ্টা ১১ মিনিট, সুইডেনে ২০ ঘণ্টা ০৩ মিনিট, নরওয়েতে ২০ ঘণ্টা ০৭ মিনিট এবং ফ্রান্সে ১৮ ঘণ্টা ০৫ মিনিট

যারা প্রবাসী কেবল তারাই জানে যে, ঠিক কতটা ধৈর্যের প্রয়োজন এই রমজান মাসে সিয়াম সাধনার জন্য একদিকে তো দীর্ঘ সময় রোযা রাখতে হয়, আবার অন্যদিকে কাজের চাপ তো আছেই যারা পরিবার ছাড়া থাকেন কেবল তারাই বুঝতে পারেন যে, এই সময়ে পরিবারের প্রয়োজনীয়তা কতটুকু! তারপরও সর্বোপরি আল্লাহ্তায়ালার সন্তুষ্টি লাভের জন্য সবাই নিজ নিজ জায়গা থেকে যথাসাধ্য চেষ্টা করেন

Syed Shahil

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.