ইউরোপ গ্রিস

বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনাই গ্রীসে লোক সংগীত উৎসব উদযাপন

শেয়ার করুন

গ্রীস: পবাসী বাংলাদেশীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে গ্রীসে লোক সঙ্গীত উৎসব ২০১৯ ব্যাপকআনন্দ ও উদ্দীপনার সাথে উদযাপিত হয়েছে। গত পাঁচ অক্টোবর শনিবার সাপ্তাহিক ছুটির দিনে পশ্চিম আখাইয়া মানোলাদার লাপা প্রাইমারী স্কুল অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ দূতাবাস, প্রবাসী বাংলাদেশীদের বিনোদনের লক্ষে দিনব্যাপী এই লোক সঙ্গীত উৎসবের আয়োজন করে । এ উপলক্ষে লাপা প্রাইমারী স্কুল প্রাঙ্গণ বাংলাদেশী সঙ্গিতপ্রেমীদের দ্বারা পরিপূর্ণ হয়ে উঠে ৷

গ্রীসে বাংলা সংস্কৃতি ছড়িয়ে দেবার উদ্দেশ্যে দূতাবাসের এই আয়োজনে সারা দিয়ে প্রবাসীরা গ্রীক বন্ধুদের সাথে নিয়ে আসেন এবং লাপা প্রাইমারী স্কুল অডিটোরিয়াম প্রায় চারশত বাংলাদেশী এবং গ্রীক নাগরিকদের এক মিলন মেলায় পরিনত হয়। এথেন্স এবং নিকটবর্তী শহর সমুহ থেকে বাংলাদেশীগন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে। দূতাবাসের কাউন্সিলর (শ্রম) ড. সৈয়দা ফারহানা নূর চৌধুরীর সঞ্চালনায় বিকাল ৪:০০ মিনিটে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়।

এতে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গ্রীসে নিযুক্ত বাংলাদেশর রাষ্ট্রদূত মোঃ জসীম উদ্দিন এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিম আখাইয়ার ভাইস মেয়র মি. ওরলোফ ও স্থানীয় মিউনিসিপালিটি বোর্ডের সদস্য মি. লাগোস। এ সময় বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রীসের সিনিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট, সাধারণ সম্পাদক, গ্রীসে আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ গ্রীসে প্রবাসী বাংলাদেশীদের বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, বেবসায়ী এবং জেলা ও বিভাগভিত্তিক আঞ্চলিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

প্রবাসী বাংলাদেশী পরিবার, নারী পুরুষ, ছাত্র ছাত্রী, সর্বস্তরের বাংলাদেশী এবং দূতাবাসের সকল সদস্যসহ সর্বস্তরের মানুষ এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। এ সময় লাপা, মানোলাদার ঐতিজ্যবাহি বাউল জালালি সংগঠন ও এথেন্সের জনপ্রিয় দোয়েল সাংস্কৃতিক সংগঠনের শিল্পীবৃন্দ লোকজ ও দেশীয় পোষাকে সজ্জিত হয়ে দেশীয় বাদ্যযন্ত্রের মূর্ছনাই মনোমুগ্ধকর গান ও দেশীয় নৃত্য পরিবেশন করেন।

গ্রীসে নিযুক্ত বাংলাদেশর রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন এ উপলক্ষে বলেন, লাপা মানোলাদা লোক সঙ্গীত উৎসব বাংলা সংস্কৃতি ও বিদেশে বাংলাদেশকে পরিচিত করানোর এক মাইল ফলক হিসেবে কাজ করবে। তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, অন্যরাও এই কার্যক্রমে এগিয়ে আসবে এবং বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের সংস্কৃতি ছড়িয়ে পরবে সমগ্র গ্রীসে। তিনি আরও বলেন-

“এ ধরণের অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে গ্রীসে ও বাংলাদেশর মধ্যে জনগন পর্যায়ে অন্তঃসংযোগ সংহত হবে যা দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে দৃঢ়তর করতে সহায়ক ভুমিকা পালন করবে।”

এ ছাড়াও রাষ্ট্রদূত জসীম উদ্দিন বলেছেন, মানোলাদা এবং লাপা এলাকাই কৃষি খামারে কর্মরত হাজার হাজার প্রবাসী বাংলাদেশীদের অক্লান্ত শ্রমের বিনিময়ে অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখছে। তিনি সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে একটি উন্নত দেশে পরিণত করার প্রচেষ্টাই অবদান রাখার আহবান জানান।

পরে রাষ্ট্রদূত ও আমন্ত্রিত অতিথিরা অংশগ্রহণকারী শিল্পীদের মাজে শুভেছা পুরস্কার বিতরন করেন। প্রবাসী বাংলাদেশীরা তাদের মনোভাব প্রকাশ করে বলেন, এই ধরণের অনুষ্ঠান প্রবাসী বাংলাদেশীদের জন্য বয়ে আনন্দ, বন্ধন, আর সম্প্রীতি এবং এ অনুষ্ঠানটি লাপা, মানোলাদাই প্রবাসীদের মধ্যে বিপুল উদ্দীপনার সঞ্চার করেছে।

মুহম্মদ আল আমিন, গ্রীস প্রতিনিধি

আরো পড়়ুন

“জানাজায় আসার মত ৫ মিনিট সময় হলোনা স্যার?”

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.