Featured ইউরোপ গ্রিস

বাংলাদেশ ও গ্রীসের চিত্রশিল্পীদের অংশগ্রহণে এথেন্সে চিত্র প্রদর্শনী

শেয়ার করুন

গ্রীসের রাজধানী এথেন্সে বাংলাদেশ ও গ্রীসের চিত্র শিল্পীদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয়েছে ‘রঙ তুলির আঁচড়ে’ শীর্ষক এক চিত্র প্রদর্শনী। এথেন্সেস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস এই প্রদর্শনীর আয়োজন করে। প্রদর্শনী আয়োজনে সহযোগিতা করেছে এথেন্স সিটি কর্পোরেশন এবং ইলিওপোলি শিল্পী ও সাহিত্যিক গোষ্ঠী। এথেন্সের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত সেরাফিও আর্ট গ্যালারীতে আটাশ জুন শুক্রবার বিকেলে এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন গ্রীসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ জসীম উদ্দিন।

বাংলাদেশ এবং গ্রীসের মধ্যে সাংস্কৃতিক যোগাযোগ বৃদ্ধি এবং বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে সামনে রেখে দূতাবাস এ আয়োজন।প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণকারী সাত জন বাংলাদেশি চিত্র শিল্পী হলেন রেজাউন নবী, মুনিরুজ্জামান, শামসুল আলম, ফজলুর রাহমান, মাহফুজুর রহমান বিশ্বজিৎ গোস্বামী, জহির উদ্দিন এবং অংশগ্রহণকারী সাতজন গ্রীক শিল্পী হলেন ডোরা স্কুটেরি, ভারভারা কিগকা, ফটিনি পাপ্পা, নাদিয়া বারাকু, ননটাস রেন্টজিস, স্টাভরোস জোরজোস এবং স্টিলিয়ানোস মারুলিস।

প্রদর্শনী উদ্বোধনকালে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জসীম উদ্দিন বলেন-

”চিরায়ত শিল্প সংস্কৃতির ঐতিহ্যবহনকারী দুটি দেশ বাংলাদেশ ও গ্রীস। এই দুই দেশের শিল্পীদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত চিত্র প্রদর্শনী একদিকে যেমন দুই দেশের বন্ধুত্বপুর্ণ সম্পর্কের স্বীকৃতি অন্যদিকে শিল্প-সংস্কৃতি বিনিময়ের একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।”

শিল্পীদের অভিনন্দন জানিয়ে দুই দেশের সংস্কৃতিকে তুলে ধরতে সম্মিলিতভাবে কাজ করার আহবান জানান তিনি । প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উত্তরোত্তর আর্থ-সামাজিক অগ্রগতির কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত আরো বলেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি আজ বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত। অন্যান্য ক্ষেত্রের মতো সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রেও আমাদের শিল্পীরা সারাবিশ্বে সম্মানের সাথে বাংলাদেশকে তুলে ধরছেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সঞ্চালনা এবং প্রদর্শনীর সার্বিক সমন্বয় করেন দূতাবাসের প্রথম সচিব সুজন দেবনাথ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের গ্রীসের ইলিওপোলি শিল্পী ও সাহিত্যিক গোষ্ঠীর সভাপতি জনাব স্টিলিয়ানোস মারোলিস বক্তব্য রাখেন। তিনি দুই দেশের শিল্পীদের এই সহযোগিতা ভবিষ্যতেও চলমান থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন। প্রদর্শনীর কিউরেটর ছিলেন মিসেস ডোরা স্কুটেরি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এই আয়োজনের সাফল্যের জন্য বাংলাদেশ দূতাবাসকে ধন্যবাদ জানান এবং এরকম সুন্দর আয়োজনের মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার হবে বলে মন্তব্য করেন। গ্রীসের বিশিষ্ট শিল্প সমালোচক লিওন্টিস পেটমেজাস প্রদর্শিত চিত্রকর্মগুলোর সম্পর্কে মতামত ব্যক্ত করেন এবং শিল্পীদের কর্মের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

বাংলাদেশের শিল্পীদের পক্ষ থেকে মুনীরুজ্জামান এবং রেজাউন নবী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের কূটনীতিক ও গ্রীক সরকারের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, শিল্পী, সাহিত্যিকসহ বিভিন্ন পেশাজীবী এবং দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ, বাংলাদেশের কমিউনিটি ইন গ্রীসের নেতৃবৃন্দসহ প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ব্যবসায়ী ও বিভাগ ভিত্তিক আঞ্চলিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী চৌদ্দ জন শিল্পী এবং কর্মশালার সমন্বয়ককে বিশেষ সনদপত্র প্রদান করা হয়।প্রদর্শনীতে উপস্থিত দর্শক, শিল্পী, এবং সর্বস্তরের অতিথিরা এই চিত্রকর্ম উপভোগ করেন এবং আয়োজনের ভূয়সী প্রশংসা করেন ৷

সারাবিশ্বে ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কারিগরি ত্রুটি

মুহাম্মদ আল আমিন, গ্রীস প্রতিনিধি

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.