ফিনল্যান্ড

দীর্ঘতম সময় রোজা রাখে ফিনল্যান্ডের ল্যাপল্যান্ডের মুসলমানরা

শেয়ার করুন

পবিত্র রমজান মাস শুরু হয়েছে। সারা বিশ্বের মোট জনসংখ্যার প্রায় ২২ শতাংশ মানুষ সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত রোজা রাখছে। যদিও স্থান ভেদে রোজার সময়ের পার্থক্য আছে। সৌদি আরবের বেশিরভাগ জায়গায় যেখানে প্রতিদিন রোজার দৈর্ঘ্য প্রায় ১৫ ঘন্টা, সেখানে আর্জেন্টিনার ওচায়া অঞ্চলে রোজার দৈর্ঘ্য ৯ ঘন্টার চেয়ে বেশি নয়। কিন্তু ফিনল্যান্ডের ল্যাপল্যান্ড এলাকায় বসবাসরত মুসলমানরাই সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে রোজা করে। কারণ, সেখানে রাত আসে মাত্র ৫৫ মিনিটের জন্য। অর্থাৎ সেখানে প্রতিদিন রোজার দৈর্ঘ্য হয় ২৩ ঘন্টারও বেশি সময়। দীর্ঘতম দিনের বিষয়টি মাথায় রেখে, ল্যাপল্যান্ডে বসবাসরত মুসলমানরা তাদের রোজার সময় নির্ধারণ করে সবচেয়ে কাছের মুসলিম দেশ তুরস্কের সময় অনুযায়ী।

এখানে ক্লিক করুন, লাইক দিন, প্রবাসের সব খবর পৌঁছে যাবে আপনার কাছে

স্ক্যান্ডিনেভিয়ান দেশগুলোতে প্রতিদিনের রোজার দৈর্ঘ্য প্রায় ২০ ঘন্টা। আবার আইসল্যান্ড ও গ্রীনল্যান্ডে বসবাসরত মুসলমানদের রোজার সময়ের দৈর্ঘ্য গড়ে ২১ ঘন্টা। তবে গত বছর আর্কটিক এবং নরওয়ের উত্তর অংশে বসবাসরত মুসলমানদের রোজা পালনের ক্ষেত্রে নতুন ফতোয়া এসেছে। তাদেরকে মক্কা অথবা নিকটতম মুসলিম দেশের রোজার সময় অনুসরণ করতে বলা হয়েছে। নরওয়েতে রোজার দৈর্ঘ্য ১৯ ঘন্টা পর্যন্ত হয়। যুক্তরাজ্যের মুসলমানরা ১৮ ঘন্টা পর্যন্ত এবং কানাডার মুসলমানরা প্রায় ১৭ ঘন্টা পর্যন্ত রোজা করে প্রতিদিন। অন্যদিকে বিশ্বের মানচিত্রের দক্ষিণাংশের মানুষ অর্থাৎ অস্ট্রেলিয়ার মুসলমানরা ১১ ঘন্টা ৩৫ মিনিট করে রোজা করে।

আর বাংলাদেশের কথা না বললেই নয়। বাংলাদেশে রোজার দৈর্ঘ্য গড়ে প্রায় সাড়ে ১৫ ঘন্টা।

 

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.