ইউরোপ স্পেন

স্পেনে বাংলাদেশি পাচারকারী চক্র আটক

শেয়ার করুন

স্পেনে বাংলাদেশিদের দ্বারা পরিচালিত একটি আর্ন্তজাতিক মানবপাচার চক্রকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। শুক্রবার বার্সেলোনা থেকে মানবপাচার চক্রটির ১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।    

দক্ষিণ এশিয়ার কয়েকটি দেশ থেকে চক্রটি সাড়ে তিনশর বেশি মানুষকে স্পেনে পাচার করেছে বলে আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

তাদের হাতে পাচার হওয়াদের দলে সাড়ে তিনশর বেশি ভুক্তভোগী অভিবাসী ছিলেন। যারা বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলংকা থেকে স্পেনে এসেছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মানুষদেরকে স্পেনে পাচার করে তাদের হাতে বাংলাদেশের ভুয়া পাসপোর্ট ও বাংলাদেশ পুলিশের ভুয়া চারিত্রিক সনদপত্র দিতো চক্রটি। বার্সেলোনা থেকেই নিজেদের কার্যক্রম পরিচালনা করতো তারা।

এছাড়া স্পেনে প্রবেশ করানোর জন্যে পাচার হওয়া মানুষদের কাছ থেকে ১৪ হাজার ইউরো থেকে ২০ হাজার ইউরো পর্যন্ত নেয়া হতো। যা বাংলাদেশের টাকায় বা প্রায় সাড়ে ১৩ লাখ টাকা থেকে সাড়ে ১৯ লাখ টাকা পর্যন্ত। স্পেনের বার্সেলোনায় এই চক্রের ১১ জন অপরাধীকে আটক করা হয় বলে জানিয়েছে দেশটির পুলিশ।

অভিবাসীদেরকে দক্ষিণ এশিয়া থেকে বিমানে আলজেরিয়ায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে পায়ে হেঁটে তারা প্রতিবেশী দেশ মরক্কোতে পৌঁছান। এরপর ইঞ্জিন চালিত নৌকায় ভূমধ্যসাগর পার হয়ে আসেন স্পেনে।

এই অভিবাসীরা যখন স্পেনে প্রবেশ করেন, তাদেরকে ভুয়া বাংলাদেশি পাসপোর্ট ও বাংলাদেশ পুলিশের ভুয়া চারিত্রিক সনদ দেয়া হয় স্পেনের স্থায়ী ভিসার আবেদনের জন্য।

খবরে আরও বলা হয়, আটক হওয়া চক্রটির অধীনে সাতটি সেল রয়েছে। একটি সেল দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো থেকে অভিবাসীদের যোগান দেয়। অন্য সেলগুলো পাচার চলাকালীন দেশগুলোতে এই অভিবাসীদের থাকার ব্যবস্থা করে। আরেকটি সেল ভূমধ্যসাগর পার করিয়ে দেয়। এরা ভারতীয় অভিবাসন ইচ্ছুকদের আলজেরিয়ার জাল ভিসা করিয়ে দেয়।

প্রবাস কথা ডেস্ক 

আরও পড়ুন- লেবাননে কাফালা বাতিলের দাবিতে প্রবাসী গৃহকর্মীদের বিক্ষোভ

প্রবাসীদের সব খবর জানতে; প্রবাস কথার ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.