ইতালি সফর: দুটি সুসংবাদ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

image-19507-1519039073.jpg

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সোমবার বিকেল চারটা ৪৫ মিনিটে সরকারি বাসভবন গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে আসেন। প্রধানমন্ত্রীর ইতালি সফর নিয়ে আয়োজিত এই সংবাদ সম্মেলন মন্ত্রিপরিষদ সদস্য, সংসদ সদস্যবৃন্দ, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সিনিয়র সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেয়ার শেষ মুহুর্তে এসে প্রধানমন্ত্রী বলেন আপনাদের জন্য দুটি সুসংবাদ আছে।

প্রথমটি, বাংলাদেশে এক সময় মোবাইল ফোন ব্যবহার করা কঠিন ছিল। আমি ক্ষমতায় এসে মোবাইল ফোন ব্যবহার করা সহজ করি।

২০১৩ সালের ৮ সেপ্টেম্বর থ্রিজি সেবা চালু করি। এরপর আজ সন্ধ্যায় ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ আনুষ্ঠানিকভাবে ফোরজি ইন্টারনেট সেবা উদ্বোধন করবে।

আর দ্বিতীয় সুসংবাদ হচ্ছে আমাদের বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে চলে এসেছে। শিগগির এটা উদ্বোধন করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে ৫৭ ধারা আইন বাতিল করে নতুন করে ৩২ ধারা আইনের মাধ্যমে গণমাধ্যমকে অবরুদ্ধ করা হচ্ছে। এমন প্রশ্নে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই ধারার অপপ্রয়োগ করার সুযোগ নেই। কেউ অপরাধ না করলে তার ভয় পাওয়ার কি আছে?

এছাড়াও তিনি বলেন, রোহিঙ্গারা তো মানুষ, তাদের কিভাবে ঠেলে ফেলে দেব। তবে আগে ৮ হাজার যাক, দেখি তাদের সঙ্গে কি ব্যবহার করে মিয়ানমার। প্রশ্নফাঁস প্রসঙ্গে জানান, প্রশ্নফাঁস নতুন কিছু না, যুগযুগ ধরে হচ্ছে আর ২০ মিনিট বা এক ঘন্টা আগে, এই সময়ের মধ্যে পড়ে মুখস্ত করে লিখবে কোন ছাত্র এতো ট্যালেন্ট না। তবে এমসিকিউ বন্ধ করে দেওয়া হবে।

নির্বাচন প্রসঙ্গে জানান,  বিএনপি নির্বাচনে না আসলে আমাদের কিছু করার নেই, নির্বাচন করা না করা সেটা তাদের দলীয় সিদ্ধান্ত। আসুক, না আসুক নির্বাচন সময় মতো হবে, কেউ আটকাতে পারবে না। ২০১৪ সালেও নির্বাচন ঠেকাতে পারেনি, এবারও সময় মতো নির্বাচন হবে, কেউ ঠেকাতে পারবে না

  • প্রবাস কথা ডেস্ক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *