Featured এশিয়া বিশ্ব বি‌চিত্র মালয়েশিয়া রঙ্গের দুনিয়া

রাজার ফল ‘ডুরিয়ান’

শেয়ার করুন

দেখ‌তে ছোটখা‌টো কাঁঠালের ম‌তো হ‌লেও কাটা গু‌লো কাঠা‌লের চে‌য়েও বড়। ভিত‌রে তিন কিংবা চার প্র‌কোষ্ট বি‌শিষ্ট কোষ যেটা ঝাঝা‌লো আর তিব্র গন্ধ যুক্ত কিন্তু মি‌ষ্টি ও মোলা‌য়েম একটা ফল। ম‌ু‌খে দি‌লেই ম‌নে হ‌বে মাখন জাতীয় কিছু মু‌খে দেয়া হ‌য়ে‌ছে, আর মু‌খে দেয়ার নি‌মি‌ষের ম‌ধ্যেই উধাও! বল‌ছিলাম মাল‌য়ে‌শিয়ার জাতীয় ফল ডু‌রিয়ান সম্প‌র্কে। আজ প্রবাস কথার পাঠক‌দের জন্য থাক‌ছে ডু‌রিয়ান সম্প‌র্কে বিস্তা‌রিত।

ডু‌রিয়ান না‌মেই বিশ্বময় প‌রি‌চিত এ ফল‌টির বৈজ্ঞানীক নাম ডু‌রিও। যে এর তিব্র ঝাঝ ও গন্ধ সহ্য ক‌রে একবার খে‌তে পে‌রে‌ছে সে এই ফ‌লের প্রে‌মে প‌রে গে‌ছে। প্রথম প্রথম সবার কা‌ছেই বিধঘু‌টে লাগ‌লেও ড‌ু‌রিয়ান কিন্তু কাউ‌কে নিরাশ ক‌রে না। স্থানীয়দের অন্যতম পছ‌ন্দের ফল ডু‌রিয়ান। আর ভ্রমন পিপাসু‌দের কা‌ছে আগ্র‌হের কেন্দ্র‌বিন্দু‌তে থা‌কে এই ফল‌টি।

জাত ও প্রকার ভে‌দে দাম ভিন্ন ভিন্ন হ‌য়ে থা‌কে। ডু‌রিয়ান ত্রিশ প্রজা‌তির হ‌য়ে থা‌কে যার ম‌ধ্যে ৯ প্রজাতি খাওয়ার উপো‌যোগী। ডু‌রিয়া‌নের ম‌ধ্যে সেরা মুসাং কিং জা‌তের ডু‌রিয়ান(আস্ত ডুরিয়ান)প্র‌তি কি‌লো ৭০-৮০ রি‌ঙ্গিত মা‌নে বাংলা‌দে‌শি টাকায় ১৫০০ থে‌কে ১৭০০ টাকা। যার ম‌ধ্যে খাওয়ার উপ‌যোগী দানা বা কো‌ষের প‌রিমার বড়‌জোর ৩শত গ্রাম!! মা‌নে ৩শ গ্রা‌মের দাম ১৭০০৳!!

দাম ও স্বাদ সব মি‌লি‌য়ে তাই‌তো একে রাজার ফল বলা হয়। ডু‌রিয়ান নি‌য়ে পুর‌নো একটা গল্প প্রচ‌লিত আছে।
বহু জ‌নের কাছ থে‌কে ডুরিয়া‌নের গুনকৃর্তন শু‌নে ম্যাকাওয়ের ধনাঢ্য জুয়ারী স্টেনলি হো এর শখ হয়েছিল ডুরিয়ান ফল খাওয়ার। আর তাই সঙ্গে সঙ্গে ম্যাকাও থেকে সিঙ্গাপুরে উড়ে গেল ব্যক্তিগত বিমান। তবে সে বছর ফলটি দুষ্প্রাপ্য বলে মাত্র ৮৮টি ফল নিয়ে বিমানটি ফিরে যায় ম্যাকাও। ডুরিয়ান ফলটি সিঙ্গাপুরে আসে মালয়েশিয়া থেকে। কিন্তু ডুরিয়ান কী এমন ফল যার জন্য একজনকে ব্যক্তিগত বিমান পাঠাতে হয়েছে? দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলে ডুরিয়ানকে বলা হয় ফলের রাজা। তিব্র গ‌ন্ধের জন্য বাণিজ্যিক বিমানে এ ফল বহন করা নিষিদ্ধ । তাতে কী, স্টেনলি হোর ব্যক্তিগত বিমান আছে না! এই ৮৮টি ডুরিয়ান ফল কিনতে স্টেনলির ব্যয় হয়েছি‌লো ২ হাজার ৬৫ ডলার বা প্রায় দেড় লাখ টাকা।

চিত্রঃ ডুর‌িয়ান

যে ডুরিয়ানকে নিয়ে এতো মাতামাতি তার আকার ৬ থেকে ৭ ইঞ্চি। আর ওজন হয় এক থেকে তিন কিলোগ্রাম পর্যন্ত। জাত ভে‌দে গা‌ছের আকা‌রেও পার্থক্য র‌য়ে‌ছে, কোনটা মাঝারী খর্বকায় আবার কোন‌টি সূউর্চ্চ। ডু‌রিয়ান এর গায়ের রঙ সবুজ থেকে বাদামি। ডুরিয়ানের বাইরের আবরণ কিছুটা আমাদের কাঁঠালের মতো ত‌বে গা‌য়ের কাটা গু‌লো কাঁঠা‌লের চে‌য়ে বড়। বড় বড় কাটা থাকায় খা‌লি হা‌তে ধরে রাখায় কিছুটা সমস্যায় পর‌তে হয়। ডু‌রিয়ান কাটার ধর‌নেও র‌য়ে‌ছে কিছু পার্থক্য। কোষ অনুযায়ী ৩\৪ প্র‌কোষ্ট বিশিষ্ট হওয়া‌তে প্র‌কোষ্ট বরাবর ছু‌রি দি‌য়ে কাট‌তে হয়। তারপরই বে‌রি‌য়ে আসে হলুদ কিংবা লাল‌চে মোলা‌য়েম, মনমাতানো ঝাঝা‌লো গন্ধ যুক্ত ডু‌রিয়ান। বর্তমানে ৩০ প্রজাতির ডুরিয়ান পাওয়া যায়। তবে খাওয়া যায় ৯ প্রজাতির ডুরিয়ান। দক্ষিণ পূর্ব-এশিয়ায় মিষ্টিজাতীয় খাবারের সঙ্গে ডুরিয়ান ফল পরিবেশন করা হয়। এর বিচি রান্না করে খাওয়া যায়।

ব্রুনাই, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়ায়, থাইল্যান্ড এবং ফিলিপাইনে এ ফল বেশি জন্মে। এছাড়া শ্রীলংকা, কম্বোডিয়া, ভিয়েতনাম, ভারত, চিন, সিঙ্গাপুর, অস্ট্রেলিয়াতে ডুরিয়ান পাওয়া যায়। তবে যেসব দেশ আন্তর্জাতিক বাজারে ডুরিয়ান বাজারজাত করে তার মধ্যে অন্যতম থাইল্যান্ড। থাইল্যা‌ন্ডে প্র‌তি বছর মে মা‌সের শুরু‌তে ডু‌রিয়ান ফে‌স্টিভাল আযোজন করা হয়। বিংশ শতাব্দী থেকে বাণিজ্যিকভাবে ডুরিয়ানের উৎপাদন শুরু হয় এবং ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়।

ভিয়েতনামের ব্যবসায়ী নিকোলো ডা কোন্টি ১৫০০ শতাব্দীতে চীন ও পশ্চিম এশিয়া সফর করেন। ওই সময় তিনি যেসব ফলের নাম লিখে গেছেন তার মধ্যে ডুরিয়ান ছিল অন্যতম। ১৫৬৩ সালে প্রকাশিত পর্তুগিজ ডাক্তার গার্সিয়া ড্যা ওরটির লেখা সিম্পল ই ডগাস ডি ইন্ডিয়া বইয়ে ডুরিয়ান ফলের কথা লেখা আছে “রাজার ফল ডুরিয়ান”।

ডুরিয়ানে প্রচুর চিনিজাতীয় উপাদান আছে। এছাড়া ভিটামিন সি, পটাসিয়াম, কার্বোহাইড্রোজ, চর্বি এবং প্রচুর প্রোটিনও রয়েছে। শরীর মোটা করতে ডুরিয়ান খুব ভালো কাজ করে। ডুরিয়ান গাছের পাতা ও মূল জ্বর নিরাময়ে ওষুধের কাজ করে।

ফলের রাজা ডুরিয়ানের সঙ্গে পশ্চিমাদের পরিচয়ও বেশ পুরনো, আনুমানিক ছয়শ বছরের। ঊনবিংশ শতাব্দীতে ব্রিটিশ প্রকৃতিবিদ আলফ্রেড রাসেল ওয়ালেস তার বইয়ে উল্লেখ করেছেন, ডুরিয়ান কাসটার্ড বানোর জন্য খুবই উপযোগী।ডুরিয়ান দিয়ে তৈরি খাদ্য সামগ্রীর ম‌ধ্যে ডুরিয়ান প্যানকেক আর ম্যাকারুন ,ডুরিয়ান মুস কেক, ডু‌রিয়ান চ‌কো‌লেট উল্লেখ যোগ্য।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.