মালয়েশিয়া

‘কুয়ালালামপুর ডিক্লারেশন’ এর মাধ্যমে গ্লোবাল সামিট সমাপ্ত; ‘ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ অর্গানাইজেশন’ নামে নতুন সংগঠন আসছে

কুয়ালালামপুরের বুকিত বিনতাং এলাকায় অবস্থিত অভিজাত হোটেল বারজায়া টাইমস স্কয়ারে ২০ নভেম্বর আয়েবা’র উদ্যোগে আয়োজিত  নানা কর্মসূচীর মধ্যে দিয়ে ‘গ্লোবাল সামিট’ শেষ হলো। গত ১৯ নভেম্বর এ সম্মেলন শুরু হয়৷ সারা বিশ্ব থেকে আসা প্রবাসী বাংলাদেশীদের অংশগ্রহনে সকাল ১০ টায় শুরু হয় শেষ দিনের অধিবেশন৷ সারা দিনে ৪টি বিশেষ বিষয়ের উপর সেমিনার অনুষ্ঠান হয়৷ বাংলাদেশ ও বিভিন্ন দেশ থেকে আসা প্রতিনিধিরা সেমিনারে তাদের প্রযুক্তি, দক্ষতা ও অভিজ্ঞতাসহ বিভিন্ন বিষয়ে মতবিনিময় করেন৷ ‘অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন’ (আয়েবা) আয়োজিত সম্মেলনে দেশে বিনিয়োগ, প্রবাসীদের সমস্যা ও সম্ভাবনা, জ্বালানী, জলবায়ু পরিবর্তন, পরিবেশ, পর্যটন, অভিবাসনসহ  বিভিন্ন প্রসঙ্গ নিয়ে আলোচনা  হয় এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে ‘কুয়ালালামপুর ডিক্লারেশন’ নামে একটি ঘোষণাপত্র প্রকাশ করেন আয়োজকরা৷ গ্রোবাল সামিটের সকল সর্মসূচী সম্পন্ন করার পর ‘বাংলাদেশের নাইট’ নামক এক জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয় সন্ধ্যা ৮ টায়৷

Global Summit Malaysiaএ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শহীদুল ইসলাম বলেন-

‘বাংলাদেশে বিনিয়োগের অনুকূল পরিবেশ বিরাজ করছে৷ অনেক বিদেশী প্রতিষ্ঠান এখন বাংলাদেশে বিনিয়োগ করে লাভবানও হচ্ছে। বাংলাদেশের বাইরে যেসব প্রবাসী বসবাস করছেন, তারাও দেশে বিনিয়োগ করতে পারেন৷প্রবাসী বাংলাদেশীরাও দেশে বিনিয়োগের এই সুযোগ নিতে পারেন৷ এতে করে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারবেন। একই সঙ্গে দেশের সঙ্গে তাদের যোগাযোগও আরও গভীর হবে৷ বাংলাদেশে বাণিজ্য ও বিনিয়োগের বিশাল সুযোগ রয়েছে৷ এই সুযোগ প্রবাসীদেরও কাজে লাগাতে হবে৷’

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়া সরকারের পর্যটন ও সংস্কৃতি মন্ত্রী দাতো সেরি মোহাম্মদ নাজরি বিন আব্দুল আজিজ৷ প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশীদের প্রতি গভীর ভালবাসার কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন-

‘এটি  একটি ঐতিহাসিক সম্মেলন। এত সুন্দর একটি সিদ্বান্ত নেয়ার জন্য আয়েবা’কে ধন্যবাদ৷ আমি বাঙালীদের প্রতি অতি আকৃষ্ট। কারণ, তাদের মধ্যে ভাল একটি সংস্কৃতি আছে৷ আমি লন্ডনে এক সফরে গিয়ে কোথাও হালাল খাবার পাইনি। শুধুমাত্র বাংলাদেশীদের রেষ্টুরেন্টে সম্পূর্ণ হালাল খাবার পেয়েছিলাম৷ বাংলাদেশের সাথে মালয়েশিয়ার অত্যন্ত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে এবং এটি ভবিষ্যতেও থাকবে৷ এই প্রবাসী সম্মেলন কুলালামপুরে করার পছন্দকে স্বাগত জানাচ্ছি৷ মালয়েশিয়া একটি মুসলিম দেশ। এ দেশের মাটি মুসলমানদের জন্য যতটা নিরাপদ তেমনি অন্য ধর্মাবলম্বীদের জন্যও নিরাপদ৷ আমি জানি বিদেশে বসবাসকারী বাংলাদেশী প্রবাসীদের সংখ্যায় মালয়েশিয়া তৃতীয়।’

Global Summit Malaysiaমন্ত্রী সেকেন্ড হোম প্রসঙ্গে বেশ জোর দিয়ে বলেন, ‘আপনারা মালয়েশিয়ায় শুধু বেড়াতে বা শ্রম দিতে আসবেন না। আপনারা এখানে সেকেন্ড হোম নিয়ে বসবাস করুন। এ ব্যপারে আমি নিজে সহায়তা করবো এবং সকল সম্যসা সামাধানে মালয়েশিয়া সরকার সহযোগিতা করবে৷মালয়েশিয়ার অর্থনীতিতে বাংলাদেশী কর্মীরা বিশেষ একটি ভূমিকা পালন করছে, তাদের শ্রমেই মালয়েশিয়ার অর্থনীতি উন্নত হচ্ছে৷ আমি মালয়েশিয়ানদের প্রতি অনুরোধ রাখবো, আপনারা যখন উমরা করতে সৌদি আরবে যান তখন এই যাওয়া বা আসার সময় বাংলাদেশে যান৷ কারণ,  বাংলাদেশ চমৎকার একটি দেশ৷ মালয়েশিয়ায় এ রকম আরও সম্মেলনের আয়োজন করবেন আপনারা৷’
আয়েবা’র মহাসচিব কাজী এনায়েত উল্লাহ বলেন-

‘প্রবাসীরা বাংলাদেশের জন্য বিশেষ অবদান রাখছেন৷ বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক অগ্রগতিতে প্রবাসীদের অবদান ছোট করে দেখার কোন সুযোগ নেই৷ প্রবাসীরা বাংলাদেশের উন্নয়নের জন্য কোন কোন ক্ষেত্রে আরও কি কি ধরনের অবদান রাখতে পারেন, সেটা আলোচনার জন্যই মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ গ্লোবাল সামিটের আয়োজন করা হয়েছে৷ এই সেমিনারের মাধ্যমে বাংলাদেশের উন্নয়নে প্রবাসী বিশেষজ্ঞদের মাধ্যমে একটি রূপরেখা তুলে ধরা হয়েছে৷’

ফেসবুকে থাকুন প্রবাস কথার সাথে

‘বাংলাদেশ  নাইট’ নামক এক জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন একুশে পদকপ্রাপ্ত গণসঙ্গীত শিল্পী ফকির আলমগীর৷ এই অনুষ্ঠানে গান ও নৃত্য পরিবেশন করে প্রবাসী বাংসাদেশী শিল্পীরাও৷ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে গ্লোবাল সামিটের রূপরেখা প্রকাশ করেন আয়েবার ভাইস প্রেসিডেন্ট ড. জিন্নুরাইন৷ রূপরেখা প্রকাশের পরপরই বাংলাদেশ ও প্রবাসে থাকা বাংলাদেশীদের জন্য আরও বেশি কাজ করার আশা ব্যক্ত করে ‘ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ অর্গানাইজেশন’ ( ডাব্লিউবিও ) নামে নতুন একটি সংস্থার নাম ঘোষণার মধ্য দিয়ে প্রথম গ্লোবাল সামিট শেষ হয়।

Shahriar Tarek

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.