এশিয়া বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া

ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত দরিদ্র মানুষদের পাশে দাঁড়াতে চান মালয়েশিয়া প্রবাসী

শেয়ার করুন

ভিক্টোরিয়ান যুগে যখন খ্রিস্টান ধর্মের মূল্যবোধই ব্রিটিশ পরিচয়ের মূল ভিত্তি ছিল তখন সামাজিক নিয়মের বাইরে গিয়ে ব্রিটিশরা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার নজির তৈরি করেছিল ৷ ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের স্বর্ণযুগেই বেশ কয়েকজন খ্রিস্টান ধর্ম ছেড়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিল ৷

শুধু সে যুগেই নয়, বর্তমান সময়েও ধর্মান্তরিত হয়ে ইসলাম ধর্মে ফিরে আসা মানুষের সংখ্যার পরিসংখ্যান অন্যান্য ধর্মের থেকে শীর্ষে ৷ বাংলাদেশে ধর্মান্তরিত মুসলিমরা কতোটা নিরাপদ এবং সামাজিক সুবিধা ভোগ করতে পারে? মুসলিম প্রধান রাষ্ট্র বাংলাদেশেও ধর্মান্তরিত মুসলমানরা নিপীড়ণ-নির্যাতনের শিকার এবং সামাজিক-পারিবারিক সুবিধা বঞ্চিত হচ্ছে বলে অভিযোগ আছে ৷

বাহরাইনে প্রবাসীদের সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান শুক্রবার

আর এই ধরণের বঞ্চিত ও দরিদ্র ধর্মান্তরিত মুসলমানদের পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছা পোষণ করেছেন একজন মালয়েশিয়া প্রবাসী ৷ বাংলাদেশ প্রেসক্লাব অফ মালয়েশিয়া’র সভাপতি ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মনির বিন আমজান সাংবাদিকদেরকে তার এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে বলেছেন-

“সম্প্রতি আমি লক্ষ্য করেছি বাংলাদেশে অনেকেই ধর্মান্তরিত হয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করছে, যা অত্যন্ত আনন্দের সংবাদ ৷ যারা এমন ধর্মান্তরিত হয় তাদের অনেকেই বিভিন্ন সমস্যায় পরেন ৷ আমি তাদের সমস্যার ভাগ নিয়ে তাদের পাশে দাঁড়াতে চাই ৷”

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে ধর্মান্তরিত মানুষের সমস্যার কথা শুনে তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানান মনির বিন আমজার ৷ সাধারণত ওই সকল ভোক্ত ভোগীদের সাথে যোগাযোগ করার কোনো মাধ্যম না থাকার কারণে তিনি গণমাধ্যমের সাহযোগীতা চেয়ে সাংবাদিকদেরকে আরো বলেছেন-

“সোয়াবের উদ্দেশ্য নিয়েই এই উদ্যোগ নিয়েছি, নাম কামানোর জন্যে না ৷ সমস্যায় আছেন এমন কোনো ধর্মান্তরিত কেউ আমার সাথে যোগাযোগ করলে সবাইকেও আল্লাহর ইচ্ছায় সহযোগীতা করার চেষ্টা করবো ৷”

ধর্মান্তরিত কোন মুসলমান ব্যাক্তি বা পরিবারের সাহযোগীতার প্রয়োজন হলে- +৬০১৮২১৮৮৩০০ এই নম্বর অথবা বাংলাদেশ প্রেসক্লাব অব মালয়েশিয়ার পেজের-https://www.facebook.com/pg/BDPressClubofMalaysia/about/ এই লিংকে বার্তার মাধ্যমে যোগাযোগ করার অহবান জানিয়েছেন তিনি ৷

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.