আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র সুস্থ থাকুন

‘ফ্লু শট’ নেওয়া যে কারণে খুব জরুরী

শেয়ার করুন

আমেরিকা: যখনি দেখবেন আপনার শরীরে ব্যাথা, হাঁচি, গলা ব্যথা, ক্লান্তি অনুভব করছেন তার মানেই হচ্ছে ফ্লু সিজন শুরু হয়ে গেছে এবং আপনি এইসব কিছু এড়ানোর জন্য যদি প্রস্তুত থাকতে চান তাহলে দেরি না করে আজই ‘ফ্লু শট’ নিয়ে আসুন।

এই ফ্লু ভ্যাকসিন নেয়াটা খুব জরুরী। মনে রাখতে হবে আপনার সন্তানদেরকে ও এই ভ্যাকসিন দিতে হবে কারণ সন্তানদের বেশিরভাগ এই ফ্লুতে আক্রান্ত হয় তারা যখন স্কুলের বিভিন্ন ধরণের বাচ্চাদের সাথে মিশে খেলাধুলা করে। তাই নিজের সন্তানের পাশাপাশি আপনি নিজেকে ও নিরাপদ রাখুন।

“হয়তো আপনি সুস্থ আছেন কিন্তু আপনার বন্ধু বান্ধব যাদের সাথে আপনি চলাফেরা করেন তাদের কেউ একজন ফ্লুতে অসুস্থ হলে দেখা যায় ভাইরাস এর মত আপনি নিজেও আক্রান্ত হয়ে পড়েছেন। তাই নিজেকে নিরাপদ রাখার জন্য হলেও ফ্লু ভ্যাকসিন নেয়াটা জরুরী।

অক্টোবর থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত সময়টাকে ফ্লু সিজন হিসেবে গণ্য করা হয়। কারণ উত্তর আমেরিকায় এই সময়টা থেকে ঋতুর পরিবর্তন হতে থাকে। সিএনএন এর রিপোর্ট অনুযায়ী গত বছরের ফ্লু সিজনের এনালাইসিস থেকে নেয়া, ২০১৮-২০১৯ সালে মোটামুটি সিডিসির এস্টিমেট অনুযায়ী ৪২.৯ মিলিয়ন মানুষ ফ্লু তে আক্রান্ত হয়। ৬৪৭,০০০ হাজারের মত রোগী হসপিটালে ভর্তি হয় এবং এর মধ্যে ৬১,২০০ মানুষ মারা গেছে শুধু ফ্লুতে আক্রান্ত হয়ে।

উত্তর আমেরিকায় শীতের আগমনী বার্তা

যদি ও এই বছর গবেষকরা প্রেডিক্ট করতে পারছেন না এটা কতদূর ছড়াবে, তাদের নির্দেশনা হচ্ছে এই ফ্লু কে প্রিভেন্ট করার একমাত্র মাধ্যম হচ্ছে ভ্যাকসিন নেয়া। ভাইরাস সবসময় দেশ থেকে দেশান্তর পর্যন্ত ছড়িয়ে যায়। ফ্লু সিজন কারো জন্যই ভালো নয়, স্পেশালি তরুণ, প্রেগন্যান্ট মহিলারা, বয়স্ক মানুষ এবং যারা ক্রনিক রোগে আক্রান্ত তাদের জন্য এই ভ্যাকসিন নেয়াটা ম্যান্ডাটরি। সবাই এই ভ্যাকসিন নিয়ে নিজেদের নিরাপদ রাখুন, সন্তানদেরকে ও নিরাপদ করুন।

গোলাম মাহমুদ, ভার্জিনিয়া প্রতিনিধি

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.