ইরান যুক্তরাষ্ট্রের পাল্টাপাল্টি হুমকিতে আবারও উত্তেজনা

hqdefault.jpg

তেহরান ঘোষণা দিয়েছে ছয় বিশ্ব শক্তির সঙ্গে স্বাক্ষরিত ইরানের পারমাণবিক চুক্তিতে এখন কোনো ধরনের পরিবর্তন অানা হবে না। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চুক্তি বাঁচিয়ে রাখার স্বার্থে নতুন করে কঠিন ব্যবস্থা নেয়ার দাবিও আজ শনিবার প্রত্যাখ্যান করেছে দেশটি।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শনিবার ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত ওই চুক্তির ব্যাপারে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এই চুক্তিতে কোনো ধরনের সংশোধন মেনে নেবে না ইরান, সেটা এখনই অথবা ভবিষ্যতে হলেও মেনে নেবে না। একই সঙ্গে মেলাতে দেয়া হবে না জেসিপিওএ’র সঙ্গে অন্য কোনো ইস্যুকে।

শেষবারের মতো মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত শুক্রবার ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে যুক্তরাষ্ট্রেকে সরিয়ে নিচ্ছেন না বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন। তাছাড়াও ইরানের বিচার বিভাগের প্রধান আয়াতুল্লাহ সাদেক আমোলি লারিজানির বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন। ট্রাম্পের এই নিষেধাজ্ঞার পর পর ইরানও পাল্টা প্রতিশোধ নেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে বলে, যুক্তরাষ্ট্র রেড লাইন অতিক্রম করেছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, এটি হচ্ছে ইরানের শেষ সুযোগ। ইউরোপীয় মিত্রদের সঙ্গে আগামী ৪ মাসের মধ্যে বৃহত্তর ঐক্য প্রতিষ্ঠা করে তিনি ইরানের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেবেন বলেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট হুমকি দেন। তিনি আরো নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে ইরানের ১৪ বিশিষ্ট ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে।

সাম্প্রতিক সময়ের চুক্তি অনুযায়ী, ২০২৫ সালে ইরানের সঙ্গে স্বাক্ষরিত ওই চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট চান ইরানের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচিরও লাগাম টানতে।

 

  • প্রবাস কথা ডেস্ক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *