ইতালীতে এক বাংলাদেশী গ্রেফতার; এক বছরের কারাদন্ড

২৯ ডিসেম্বর বৃহঃ, ২০১৬

মতামত নেই

ঢাকার গুলশানে সন্ত্রাসী হামলায় যে ২০ জন নিহত হয়েছিল তাদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৯ জনই ছিলেন ইতালীয়ান। এরই প্রেক্ষিতে ইতালীতে বাংলাদেশী নাগরিকদের উপর নজরদারি ছিল অন্যদের চেয়ে একটু বেশি। ঐ ঘটনার পর থেকেই ইতালীতে মসজিদগুলোতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর আনাগোনা বেড়েই চলেছিল। তারই সূত্র ধরে রাজধানী রোমে গত কয়েক মাসে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বাংলাদেশী কমিউনিটি পরিচালিত ৫টি মসজিদ। অন্যদিকে গত সপ্তাহে জার্মানীর বার্লিনে হামলাকারী ইতালী পুলিশের হাতে নিহত হওয়ার ঘটনায় ইতালীতে নেয়া হয়েছে বিশেষ সতর্কতামূলক ব্যবস্থা। এরই মধ্যে গত মঙ্গলবার দুপুরের দিকে ঘটে গেল আরেকটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। এক বাংলাদেশী যুবক রাজধানী রোমের পাশে নেতুরন্নো শহরের প্রধান গির্জার সামনে আল্লাহু আকবার বলে হাতুড়ি দিয়ে লোকজনকে মারার জন্য ভয়-ভীতি দেখায়।

এখানে ক্লিক করুন, প্রবাস কথার সাথে থাকুন

পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে তাকে ধরতে চাইলে হাতুড়ি উঠিয়ে পুলিশকেও আক্রমণ করার ভয় দেখায়। পুলিশ কৌশল খাটিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। পরে সরাসারি আদালতে প্রেরণ করা হলে রোমের কাছাকাছি ভেল্লেতরির একটি আদালত তাকে এক বছরের কারাদণ্ড দেয়। অন্যদিকে, আদালেত পাঠানোর আগে পুলিশ ওই বাংলাদেশীকে একটি হাসপাতালের জরুরী বিভাগে চিকিৎসা সেবা দেয়। পরে মেডিকেল রিপোর্টে জানা যায়, সে মাতাল ছিল। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত যুবক টিটু (৩৮) নামে এলাকায় পরিচিত। গ্রামের বাড়ী গাজীপুরের কাপাসিয়া সদরে। ইতালীতে দীর্ঘদিন ধরে কোন কাজ-কর্ম না থাকায় টিটু হতাশায় ভুগছিলো বলে তার বন্ধু-বান্ধব সূত্রে জানা গেছে।

  • কমরেড খোন্দকার, ইতালী।


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *